একলাফে ১০ গুণ ফি বৃদ্ধি! গবেষক পড়ুয়াদের বিক্ষোভে ফের উত্তাল বিশ্বভারতী

05:54 PM Jun 30, 2021 |
Advertisement

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: দেড়শো থেকে লাফিয়ে বেড়ে ১৪০০ টাকা! অভিযোগ, এতটাই বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বিশ্বভারতী (Vishva Bharati) বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের ফি। আর তার প্রতিবাদে বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ (Students Agitation) দেখালেন পড়ুয়ারা। তাদের বিক্ষোভ ঘিরে দুপুরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিশ্বভারতী চত্বর। পরে অবশ্য নিরাপত্তারক্ষীদের তৎপরতায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। তবে পড়ুয়ারা নিজেদের দাবিতে অনড়, ফি না কমালে তাঁদের আন্দোলন চলবেই।

Advertisement

মঙ্গলবার দুপুর থেকে ফি বৃদ্ধির (Fee hike) প্রতিবাদে বিশ্বভারতীর উপাচার্যের দপ্তরের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন গবেষক পড়ুয়ারা। তাঁদের অভিযোগ, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণারত পড়ুয়াদের পরীক্ষা ও মার্কশিট ইস্যুর জন্য যে ফি ছিল, সেটা প্রায় দশগুণ বাড়ানো হয়েছে। ১৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে তা ১৪০০ টাকা করা হয়েছে। গত বছর থেকে করোনা (Coronavirus)সংকটের মাঝে এভাবে বারবার এত বেশিমাত্রায় ফি বাড়ালে তা তাঁদের পক্ষে দেওয়া সম্ভব না। হাতে পোস্টার, ব্যানার নিয়ে তাঁরা কেন্দ্রীয় অফিসের একটি গেটের বাইরের রাস্তায় ধরনা শুরু করেন।

[আরও পড়ুন: ফের ধূপগুড়িতে মধ্যযুগীয় বর্বরতা! পরকীয়ার ‘শাস্তি’ দিতে যুগলকে বাঁশে বেঁধে বেধড়ক মার]

এরপর তাঁরা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর অফিসের সামনের দেওয়ালে পোস্টারগুলি লাগাতে যান। সেখানে নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁদের বাধা দিলে বচসা শুরু হয়। সাময়িকভাবে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তবে সেখানেই বিক্ষোভকারীরা নিজেদের অবস্থান চালিয়ে যান। বিশ্বভারতীর ছাত্রনেতা সৌমেন সৌ’র দাবি, ”এভাবে করোনার সময়ে গবেষক পড়ুয়াদের ফিজ বাড়ানো হচ্ছে। আগের বছরও ফি বৃদ্ধি হয়েছিল। এই ফি না কমালে ছাত্রদের পক্ষে দেওয়া সম্ভব নয়। এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। তারা ছাত্রদের কথা বিবেচনা না করলে আমরাও আন্দোলন চালিয়ে যাব।” বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখপাত্র অনির্বাণ সরকার এ নিয়ে কিছু বলতে অস্বীকার করেছেন।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: বহু চেষ্টাতেও হল না শেষরক্ষা, প্রাণ হারাল ধূপগুড়িতে ধাতব বস্তু খেয়ে ফেলা ষাঁড়]

প্রসঙ্গত, ফি বৃদ্ধি ছাড়াও গত কয়েক বছরে একাধিক ইস্যুতে বারবার বিতর্কের শিরোনামে উঠে এসেছে ঐতিহ্যবাহী এই বিশ্ববিদ্যালয়। বিশেষত উপাচার্যের (VC)ভূমিকা বারবার প্রশ্নের মুখে পড়েছে। এই অবস্থায় চলতি বছর নতুন করে ফি বৃ্দ্ধি আন্দোলনকে আরও উসকে দিল।

This browser does not support the video element.

Advertisement
Next