Advertisement

একাদশে বিজ্ঞান বিভাগে ভরতির জন্য ‘শর্ত’দিল শিক্ষা সংসদ, বেঁধে দেওয়া হল সময়সীমা

08:29 PM Jul 21, 2021 |
Advertisement
Advertisement

দীপঙ্কর মণ্ডল: আগস্টেই শেষ করতে হবে একাদশ শ্রেণির (Class XI) ভরতি প্রক্রিয়া। বুধবার স্কুলগুলিকে এই নির্দেশ দিয়েছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সংসদের ভারপ্রাপ্ত সচিব তাপস মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, মাধ্যমিক উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীরা নিজের স্কুলে একাদশ শ্রেণীতে ভরতি হতে চাইলে ২ থেকে ১৪ আগস্ট এর মধ্যে ভরতি হতে হবে। স্কুল বদল করে ভরতি হতে চাইলে দিন বেঁধে দেওয়া হয়েছে ১৬ থেকে ৩১ আগস্ট। প্রত্যেকটি উচ্চমাধ্যমিক স্কুলকে (Higher Secondary) সংসদ নির্দেশ দিয়েছে আলাদা করে ভরতির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে হবে। কঠোরভাবে কোভিড বিধি মান্য করারও নির্দেশ দিয়েছে সংসদ।

Advertisement

একাদশে ভরতিতে এবার বৃত্তিমূলক বিষয় অটোমোবাইল, রিটেল, হেলথকেয়ার, কনস্ট্রাকশন, ইলেকট্রনিক্স, ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি, বিউটি এন্ড ওয়েলনেস, এগ্রিকালচার ও পাওয়ার প্রভৃতি বিষয় ঐচ্ছিক হিসাবে রাখা যাবে। এই বিষয়গুলি নিয়ে ভোকেশনাল পঠনপাঠন করা যাবে। যারা মাধ‌্যমিকে লেভেল ওয়ান এবং লেভেল টু-তে এই বিষয়গুলি নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে, তারা একাদশে এই বিষয়গুলি নিয়ে পড়ার সুযোগ পাবে। বুধবার মাধ্যমিকের (Madhyamik Exam) মূল্যায়নের ফল প্রকাশের পর সংসদ জানায়, অংক, স্ট্যাটিসটিকস, বায়োলজিক্যাল সায়েন্স, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, ভূগোল, কম্পিউটার সায়েন্স বিষয় একাদশ শ্রেণির কম্বিনেশনে রাখতে হলে নির্দিষ্ট ছাত্র-ছাত্রীকে ন্যূনতম ৪৫ শতাংশ নম্বর পেতে হবে। গণিত, স্ট্যাটিস্টিকস ও কম্পিউটার সায়েন্সের জন্য গণিতে ৪৫ শতাংশ, বায়োলজিক্যাল সায়েন্সের জন্য জীবনবিজ্ঞানে ৪৫ শতাংশ, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি বা দুটি বিষয়ের জন্যই ফিজিক্যাল সায়েন্সে ৪৫ শতাংশ এবং ভূগোল নিয়ে পড়ার জন্য ভূগোলে ৪৫ শতাংশ নম্বর পেতে হবে পড়ুয়াকে। একাদশে ভর্তির ক্ষেত্রে এই মাপকাঠি মানতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সংসদের তরফে।

[আরও পড়ুন: একুশের মঞ্চে বাম-কংগ্রেসকে নিয়ে কার্যত নীরব Mamata, কী বার্তা TMC নেত্রীর?]

উল্লেখ্য, এবার মাধ্যমিকে সাড়ে নয় লক্ষেরও বেশি ছাত্র-ছাত্রী ৬০ নম্বর পেয়েছে। এত ঢালাও নম্বর পাওয়ার পর সংসদ ৪৫ শতাংশের গণ্ডি বেঁধে দেওয়াকে হাস্যকর বলে মনে করছে প্রধান শিক্ষকদের সংগঠন। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক চন্দন মাইতির প্রতিক্রিয়া, ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ নম্বর পাওয়া পড়ুয়াদের সবাই বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হতে পারবে কিনা সন্দেহ তৈরি হয়েছে। সেখানে সংসদ মাত্র ৪৫ শতাংশের গন্ডি বেঁধে দেওয়া হাস্যকর ছাড়া কিছু নয়।” 

Advertisement
Next