Web Series Review: শ্রাবন্তী-সোহমের ম্যাজিক তো রইল, কিন্তু ‘দুজনে’সিরিজ কি জমল?

05:01 PM Jul 10, 2021 |
Advertisement

আকাশ মিশ্র: স্টার দিয়ে কি আর মন জেতা যায়? না, হালফিলের ওয়েব সিরিজে কিন্তু একেবারেই স্টারের ঝলকানি চলে না। বরং গল্পের বাঁধন হালকা হলেই সিরিজ থেকে চোখ সরিয়ে নেওয়াটাই সহজ হয়ে যায়। তাই তো দেশি-বিদেশি যে সিরিজই দেখুন না কেন, গল্পই সেখানে একমাত্র স্টার! হইচই ওটিটি প্ল্যাটফর্মের নতুন ওয়েব সিরিজ ‘দুজনে’র ক্ষেত্রে এই ব্যাপারটা একেবারেই খেঁটে যায়। এখানে সিনেমার মারাকাটারি জুটি সোহম (Sohom)-শ্রাবন্তীকে (Srabanti Chatterjee) নিয়ে এসে, সিনেমা থেকে ‘দুজনে’ নামটি ধার করে একটা চমক দিতে চেয়েছিলেন পরিচালক প্রমিতা ভট্টাচার্য। কিন্তু গল্পের সঙ্গে এই জুটির তাল না মেলায়, সিরিজ হয়ে পড়ল মধ্যমানের। তাহলে কি যত দোষ সোহম-শ্রাবন্তীর? একেবারেই নয়। বরং দোষ পুরো মেকিংয়ে। তবে এখানেই বলে রাখা উচিত ‘দুজনে’ সিরিজের কিছু ভাল দিকও রয়েছে। না হয় সে কথা একে একে বলা যাবে, তার আগে সিরিজের গল্পটার আঁচ দেওয়া যাক।

Advertisement

শুরুতে দেখা গেল গাড়ি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে গুরুতর আহত অমর ওরফে সোহম। দুমাস পরে হাসপাতাল থেকে বাড়িতে ফিরেও আসল সে । কিন্তু তাঁর চলাফেরা, কথাবলা অমরের সঙ্গে যেন একটুও মিলছে না। সেটা নজরে আসে অমরের স্ত্রী অহনার ওরফে শ্রাবন্তীর। অমর কি অন্যকেউ? এই প্রশ্ন নিয়েই সত্যি খুঁজতে কোমর বেঁধে নেমে পড়লেন শ্রাবন্তী। আর তা খুঁজতে গিয়েই একে একে মারাত্মক সব ঘটনার মুখোমুখি হয়ে পড়ল সে। এই গল্পই এগিয়ে চলল ১০টা এপিসোডে।

[আরও পড়ুন: Film Review: সম্পর্কের টানাপোড়েনে কতটা দাগ কাটল ‘হাসিন দিলরুবা’?]

থ্রিলারের ঘরানাতেই তৈরি হয়েছি দুজনে। এমনিতে থ্রিলারের নিয়মকানুন ঠিকঠাক অনুসরণ করেছেন পরিচালক। এপিসোডে শুরুতেও চমক রেখেছেন, শেষেও চমক রেখেছেন যাতে গিয়ে পরের এপিসোড দেখার এক উৎসাহ জাগবে। কিন্তু সব গন্ডগোল ওই শেষ ও শুরু মাঝখানে। প্রত্যেক এপিসোডের শুরুতেই মনে হবে গল্পটা এগোবে। কিন্তু একটু সময় যেতেই বুঝে যাবেন, তা একেবারেই নয়। বরং একই গল্পকেই বার বার, বলা ভাল স্লো-মোশনে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন যেন পরিচালক। এর ফলে কোনও এপিসোডেই নতুন কোনও তথ্য পাওয়া যাচ্ছিল না। যা কিনা থ্রিলারকে টানটান উত্তেজনা থেকে দূরে সরিয়ে রেখেছিল। তবে দুজনে সিরিজের একটা বিষয় নিয়ে পরিচালককে বাহবা দিতেই হয়। চরিত্র বিন্যাসের ক্ষেত্রে এই সিরিজে খুবই যত্ন দিয়েছেন পরিচালক। এর আগে কোনও বাংলা সিরিজে এরকমটা দেখা যায়নি। সেক্ষেত্রে ‘দুজনে’ অনেকটা এগিয়ে।

Advertising
Advertising

দুজনে সিরিজের আরেকটি দুর্বল পয়েন্ট হল, শেষ এপিসোডের অনেক আগেই পরিচালক রহস্যের টুইস্ট খোলসা করে দেন দর্শকদের কাছে। যে টুইস্ট নিয়েই গল্প এগিয়ে যাচ্ছিল, তা সামনে আসলেও দর্শক খুব একটা সারপ্রাইজ হবে না। যা কিনা এই সিরিজের প্রতি ইন্টারেস্টকে ধরে রাখতে ব্যর্থ! শ্রাবন্তী ভাল, সোহমও ভাল। তবে দুজন সিরিজে এই জুটির অভিনয় বড্ড বেশি কর্মাসিয়াল ছবির মতো। যা কিনা সিরিজের ছন্দের সঙ্গে একেবারেই মেলে না। শুধু বহুদিন পর ‘ও মাই লাভ’ গানটি দেখতে ভাল লাগে। ক্লাইম্যাক্সে ‘এগিয়ে দে’ গানটিও জমে যায়। কিন্তু গান দিয়ে তো আর সিরিজকে সাজানো যায় না! অবশেষে বলতে গেলে ‘দুজনে’ আশা জাগিয়েও খুব একটা আগ্রহ জিইয়ে রাখতে পারল না। দ্বিতীয় সিজিনের চমক দিয়ে এই সিরিজ শেষ হলেও, খুব একটা কৌতুহল জাগাতে পারল না শ্রাবন্তী-সোহমের ‘দুজনে’।

[আরও পড়ুন: Film Review: রামকমলের ‘রিকশাওয়ালা’ যেন এক সামাজিক দলিল]

This browser does not support the video element.

Advertisement
Next