Advertisement

জওয়ানের হত্যার বদলা, সাত পাক সেনাকে নিকেশ করল ভারত

09:05 AM Jan 15, 2018 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের এক ভারতীয় জওয়ানকে হত্যার বদলা নিল ভারত। সোমবার ভারতের সশস্ত্র সেনা অন্তত সাতজন পাক রেঞ্জার্সকে নিকেশ করল নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে। আহত হয়েছে আরও চার পাক সেনা। গত শনিবার পাক সেনার গুলিতে জম্মু ও কাশ্মীরের রজৌরিজেলায় এক জওয়ান শহিদ হন। সেদিনই সশস্ত্র বাহিনী শপথ নেয়, পাক সেনার রক্ত ঝরিয়ে বদলা নেওয়া হবে এই কাপুরুষোচিত হামলার। সেইমতো আজ নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে পুঞ্চ জেলায় পাক সেনাকে গুলিতে ঝাঁজরা করে দেন জওয়ানরা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[অনুপ্রবেশ বন্ধ না করলে পাকিস্তানকে চূড়ান্ত শিক্ষা দেব, হুঁশিয়ারি রাওয়াতের]

চমকে যাওয়ার মতো ঘটনা হল, এই প্রথম পাক সরকার এই অভিযানের কথা আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার করল। তারা অবশ্য নিহত পাক সেনাদের ‘শহিদ’ তকমা দিয়েছে। পাক সংবাদপত্রে দাবি করা হয়েছে, নিয়ন্ত্রণরেখায় বিনা প্ররোচনায় গুলি চালিয়েছে ভারত। পাক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, সেক্টরের জনদ্রোতে ভারতীয় সেনার গুলিতে তাদের চার সেনা শহিদ হয়েছেন। আজ একদিনে জোড়া বিপাকে পাকিস্তান। আজই অন্তত ছয় জইশ জঙ্গিকে নিকেশ করেছে পুলিশ ও সেনার যৌথবাহিনী। এর পাশাপাশি, ৭০তম সেনা দিবসে সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত পাকিস্তানকে উদ্দেশ্য করে কড়া বার্তা দিয়ে বলেছেন, কোনওমতেই পাকিস্তানকে জিততে দেওয়া হবে না। পাক সেনা যতই জঙ্গিদের অনুপ্রবেশে সাহায্য করবে, ভারত ততই জোরাল প্রত্যুত্তর দেবে।

[উরিতে ৫ জইশ জঙ্গিকে খতম করল সেনা, প্রশংসায় রাজনাথ]

সীমান্তে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বড় মাপের অভিযান অবশ্য নতুন কিছু নয়। সম্প্রতি বিএসএফের হেড কনস্টেবল বাঙালি রাধাপদ হাজরাকে পাক সেনা হত্যা করার পর বিএসএফ শপথ নেয়, সূর্য ওঠার আগেই ওই ঘৃণ্য কাজে অভিযুক্তদের খতম করা হবে। সেইমতো চালানো হয় সার্জিক্যাল স্ট্রাইক, খতম করা হয়  ১৫ পাক রেঞ্জার্স ও জঙ্গিদের দলটিকে। সবমিলিয়ে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে নয়া ভারতের শক্তিশালী সেনাবাহিনী যে পাকিস্তানকে দেশের আব্রুর দিকে চোখ তুলে তাকাতে দেবে না, আজকের অভিযান সেই কথা ফের প্রমাণিত করল। সেন্ট্রাল ইন্টেলিজেন্সের একটি পরিসংখ্যান মোতাবেক, ২০১৭-তে ১৩৮ জন পাক সেনা ও জঙ্গিকে খতম করেছে ভারত।

Advertising
Advertising

 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next