Advertisement

ডিভিসির ছাড়া জলে রাজ্যে বন্যা পরিস্থিতি, নালিশ জানিয়ে মোদিকে চিঠি ‘ক্ষুব্ধ’মুখ্যমন্ত্রীর

12:55 PM Oct 06, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যের আট জেলার বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্র ও ডিভিসিকে (DVC) দুষেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেছিলেন, এর প্রতিকার চেয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Narendra Modi) চিঠি দেবেন। যেমন কথা, তেমন কাজ। এবার রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে মোদিকে চিঠি দিলেন মমতা। সেখানে ডিভিসির বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন তিনি।

Advertisement

চিঠিতে মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ডিভিসি নিয়ে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করুক কেন্দ্র। না হলে বন্যা থেকে মুক্তি পাবে না রাজ্য। জলাধারগুলি সংস্কারের দাবি তুলে গত ৪ আগস্ট কেন্দ্রকে চিঠি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তার জবাব মেলেনি। কেন্দ্রীয় সরকারের এহেন ভূমিকা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক বলে মন্তব্য করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

[আরও পড়ুন: Durga Puja 2021: দেশবাসীর সুস্থতা কামনা করে মহালয়ায় টুইট প্রধানমন্ত্রীর, শুভেচ্ছা জানালেন মমতাও]

ফের একবার লেখা চিঠিতে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, ৩০ সেপ্টেম্বর ডিভিসির মাইথন-পাঞ্চেত থেকে অপরিকল্পিতভাবে জল ছাড়ে। অথচ ২৪ সেপ্টেম্বরই দুর্যোগের পূর্বাভাস দিয়েছিল আবহাওয়া দপ্তর। হাতে চারদিন সময় পেলেও জল ছাড়েনি ডিভিসি। প্রবল বৃষ্টির মধ্যে ১০ লক্ষ একর ফুট জল ছাড়ে ডিভিসি। যার জেরে উৎসবের মরশুমে বানভাসী হয়েছে বঙ্গের আট জেলা। কখন কীভাবে কতটা জল ছেড়েছে ডিভিসি তার বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত একের পর জলাধারের ছাড়া জলে ভেসেছে রাজ্যের বিস্তীর্ণ এলাকা। ঘরছাড়া লক্ষাধিক। সম্পত্তির ক্ষয়ক্ষতির হিসেব এখনও মেলেনি। ক্ষয়ক্ষতি খতিয়ে দেখতে শনিবার সকালে বেরিয়ে পড়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিদর্শনের পর তিনি জানিয়েছিলেন, বছরে চার বার জল ছাড়ছে ডিভিসি। এবারও কয়েক লক্ষ কিউসেক জল ছেড়েছে। অন্তত ১ লক্ষ বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৪ লক্ষ মানুষকে অন্যত্র সরানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘কৃষকদের উপর পরিকল্পিত হামলা’, লখিমপুর খেড়ি যাওয়ার আগে কেন্দ্রকে তোপ রাহুলের]

সেইসময় মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেছিলেন, “ডিভিসির ক্ষতিপূরণ দেওয়া উচিত। বারবার তাদের ছাড়া জলে বন্যা হবে। ওরা তো কেন্দ্রের অধীনে। ওরা জল ছাড়বে, আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হব আর ওরা টাকা আয় করবে, এটা হতে পারে না।” একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়ার কথাও জানিয়েছিলেন। এবার সেই চিঠি লিখে ফেললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। 

Advertisement
Next