নেতাজি জন্মজয়ন্তীতে ফের রাজ্যে আসতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, দাবি সূত্রের

05:41 PM Dec 30, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের রাজ্য সফরে আসছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। চলতি মাসে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা (JP Nadda) বাংলায় এসেছিলেন। দু’দিনের রাজ্য সফর সেরে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। এবার খোদ প্রধানমন্ত্রী রাজ্যে পা রাখতে চলেছেন। শোনা যাচ্ছে, আগামী ২৩ জানুয়ারি নেতাজি জয়ন্তী উপলক্ষে রাজ্যে আসবেন তিনি। কলকাতায় নেতাজিকে নিয়ে তৈরি হওয়া সংগ্রহশালার উদ্বোধন করতে পারেন মোদি। যদিও, সরকারিভাবে এখনও প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর এই কর্মসূচি ঘোষণা করেনি। 

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

বুধবারই নেতাজির স্মরণে টুইট করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ১৯৪৩ সালের ৩০ ডিসেম্বরই পোর্টব্লেয়ারে প্রথমবার তিরঙ্গা উত্তোলন করেছিলেন নেতাজি। তার ৭৭ তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে টুইট করে প্রধানমন্ত্রী বলেন,” আজকের দিনটি প্রত্যেক ভারতীয়র মনে বিশেষ জায়গা দখল করে থাকবে। ১৯৪৩ সালের ৩০ ডিসেম্বরই পোর্টব্লেয়ারে তিরঙ্গা উত্তোলন করেছিলেন নেতাজি।এই ঐতিহাসিক ঘটনার ৭৫ তম বর্ষে আমি পোর্ট ব্লেয়ার গিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের সুযোগ পেয়েছিলাম। সেই স্মৃতি তুলে ধরছি।”  

Advertising
Advertising

নেতাজির ১২৫তম জন্মবার্ষিকী সাড়ম্বরে পালন করতে চায় কেন্দ্র। নেতাজির (Netaji Subhash Chandra Bose) জন্মদিন অর্থাৎ ২৩ জানুয়ারি থেকেই শুরু হয়ে যাবে বছরভরের উদযাপন। বাংলার বিভিন্ন প্রান্ত তো বটেই দেশের একাধিক প্রান্তে নেতাজিকে নিয়ে বিশেষ অনুষ্ঠান করবে কেন্দ্র। সংস্কৃতি মন্ত্রকের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, নেতাজি তথা আজাদ হিন্দ ফৌজের (Indian National Army) অন্য সদস্যদের লেখা পুরনো বইগুলো নতুন করে ছাপা হবে। নেতাজিকে ইয়ুথ আইকন হিসেবে তুলে ধরতে বিভিন্ন স্কুল-কলেজে আলাদা লেকচারের ব্যবস্থা করা হবে। সমস্ত কর্মসূচি ঠিক করতে ইতিমধ্যেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর নেতৃত্বে ‘হাই লেভেল কমেমোরেশন কমিটির’ গঠন করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি মন্ত্রক।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: শিখদের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাতের অভিযোগ! বিতর্কিত শাল পরার জন্য ক্ষমা চাইলেন সিধু]

এবার শোনা যাচ্ছে, খোদ প্রধানমন্ত্রী বাংলায় এসে নেতাজির জন্মজয়ন্তী পালন করবেন। তবে এর পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর কোনও রাজনৈতিক কর্মসূচি থাকছে, কিনা সেটা এখনও স্পষ্ট নয়। বাংলার নির্বাচনের আগে নেতাজির জন্মজয়ন্তী নিয়ে কেন্দ্রের এই উৎসাহ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। আসলে সম্প্রতি ভোটের কথা মাথায় রেখে সুকৌশলে বাঙালি আবেগ উসকে দেওয়ার চেষ্টার কসুর করছে না বিজেপি (BJP)। আর এই কাজটিতে গেরুয়া শিবিরের প্রধান অস্ত্র স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। গত কয়েকমাসে একাধিকবার তাঁর বিভিন্ন বক্তৃতায় উঠে এসেছে বাংলার মনিষীদের নাম। আসলে তৃণমূল বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাদের যে বহিরাগত তকমা দিচ্ছে, তা পুরোপুরি ঝেড়ে ফেলতে চায় কেন্দ্রের শাসকদল। আর সেই লক্ষ্যে এবার তাঁদের হাতিয়ার হতে চলেছে নেতাজি আবেগ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next