Advertisement

রাজ্য নয়, ৩ কোটি কোভিডযোদ্ধার টিকাকরণের খরচ দেবে কেন্দ্রই, ঘোষণা মোদির

06:07 PM Jan 11, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথম দফায় ৩ কোটি কোভিডযোদ্ধাকে করোনার টিকা দেওয়া হবে। এই টিকাকরণের কোনও খরচ রাজ্যকে বহন করতে হবে না। এই খরচ দেবে কেন্দ্র। সোমবার দেশের সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভারচুয়াল বৈঠকে সাফ জানিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi) । তাঁর এই মন্তব্য রাজনৈতিক ক্ষেত্রেও তাৎপর্যপূর্ণ বলে দাবি ওয়াকিবহাল মহলের। 

Advertisement

কোভিড টিকাকরণ কর্মসূচি নিয়ে এদিন বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী। সেই বৈঠকে স্বদেশি টিকার গুরুত্ব বোঝানোর পাশাপাশি কেন্দ্র-রাজ্যের যৌথ লড়াইয়ের কথা তুলে ধরেন মোদি। তুলে ধরেন করোনা টিকাকরণ কর্মসূচির খুঁটিনাটিও। বৈঠকের শেষের দিকে বার্ড ফ্লু নিয়েও দেশবাসীকে সতর্ক করতে ভোলেননি প্রধানমন্ত্রী।

বৈঠকের শুরুতেই কোভিডের বিরুদ্ধে কেন্দ্র-রাজ্যের যৌথ লড়াইকে কুর্ণিশ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এটাই যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোর জয়।” তাঁর কথায়, কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করতে রাজ্যগুলিও কেন্দ্রের সঙ্গে যেভাবে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়েছে, তা প্রশংসার যোগ্য। 

[আরও পড়ুন : প্রতীক্ষার অবসান, সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে করোনা ভ্যাকসিন কিনছে মোদি সরকার]

বিদেশ থেকে টিকা আমদানি না করে কেন দেশে প্রতিষেধক তৈরিতে জোর দিয়েছিল কেন্দ্র? এদিন এই প্রশ্নেরও জবাব দেন মোদি। তাঁর কথায়, “ভারতের আর্থিক পরিস্থিতি দেখে এই টিকা তৈরি হয়েছে। দু’টি টিকাই বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে সস্তা। বিদেশ থেকে ভ্যাকসিন আমদানি করলে বড় সমস্যার মুখে পড়তে হত।”  এদিন প্রধানমন্ত্রী আরও একবার মনে করিয়ে দেন, বিশ্বের বৃহত্তম টিকাকরণ প্রক্রিয়া ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশে শুরু হচ্ছে।

টিকাকরণ কর্মসূচি চলাকালীন কী কী সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে তাও এদিনের বৈঠকে তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি জানান, কারা ভ্যাকসিন পাচ্ছেন, সেই সংক্রান্ত তথ্য কো-উইন অ্যাপে রিয়েলে টাইমে আপডেট করতে হবে। এমনকী, টিকা নেওয়ার পর রিয়েল টাইমে ডিজিটাল শংসাপত্রও দিতে হবে। এদিন গুজব রুখতে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ারও আরজি জানান মোদি। বৈঠকের শেষে প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, পরবর্তী বৈঠকের আগে আরও কয়েকটি ভ্যাকসিন ভারতের বাজারে ছাড়পত্র পেয়ে যাবে। কারণ দেশে আরও চারটি টিকার ট্রায়াল চলছে। 

প্রসঙ্গত, বিনামূল্যে করোনা টিকা দেওয়া হবে কি না, তা নিয়ে কেন্দ্র ও বাংলার মধ্যে রীতিমতো টানাপোড়েন চলছে। এরই মাঝে কোভিডযোদ্ধাদের বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর। যা তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন : যৌন হেনস্থার জের, বারাণসীতে প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ককে বেধড়ক পেটাল নির্যাতিতার পরিবার]

Advertisement
Next