কাশ্মীরের অনন্তনাগে রাতভর গুলির লড়াই, খতম হিজবুল কমান্ডার-সহ ৩ জঙ্গি

01:57 PM Jun 29, 2020 |
Advertisement

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর: রাতভর গুলির লড়াই চলার পরে সোমবার সকালে ফের খতম হল তিন জঙ্গি। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগ (Anantnag) জেলার রুনিপোরা খুলচোহার (Runipora Khulchohar) এলাকায়। মৃতদের মধ্যে দুজন লস্কর-ই-তইবা ও অন্যজন হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গি বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

সোমবার সকালে প্রথমে কাশ্মীর পুলিশের পক্ষে টুইট করে জানানো হয়, তিন জন জঙ্গিকে খতম করা হয়েছে। তাদের পরিচয় জানার চেষ্টা করার পাশাপাশি তল্লাশিও চলছে। এই টুইটের সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টটিকেও ট্যাগ করা হয়েছিল।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: PM CARES-এ কোটি কোটি টাকা ঢেলেছে চিনা সংস্থাগুলি, চাঞ্চল্যকর দাবি কংগ্রেসের]

পরে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রবিবার রাতে রুনিপোরা এলাকায় অভিযান চালাচ্ছিল কাশ্মীর পুলিশ, ভারতীয় সেনার ১৯ নম্বর রাষ্ট্রীয় রাইফেলস ও সিআরপিএফের যৌথবাহিনী। এরপর রাতেই জঙ্গিদের সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষীদের গুলির লড়াই শুরু হয়। রাতভর তুমুল লড়াইয়ের পর সোমবার সকালে ঘটনাস্থল থেকে তিন জঙ্গির মৃতদেহ উদ্ধার হয়। এর পাশাপাশি সেখান থেকে একটি একে-৪৭ ও দুটি পিস্তল-সহ প্রচুর কার্তুজ ও অস্ত্র উদ্ধার হয়েছে।

এপ্রসঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরের ডিজিপি জানান, যৌথবাহিনীর অভিযানের ফলে খুলচোহার এলাকায় হিজবুল মুজাহিদিন কমান্ডার মাসুদ ভাট ও ২ লস্কর জঙ্গি   খতম হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন লস্করের জেলা কমান্ডার ছিল। নাম তারিক খান ও নাদিম। সোমবার এই অভিযানের ফলে মাসুদ ভাট খতম হওয়ায় ডোডা জেলা পুরোপুরি জঙ্গিমুক্ত হল। 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, জুন মাসে এখনও পর্যন্ত মোট ১৩টি এনকাউন্টার হয়েছে ভূস্বর্গে। তাতে খতম হয়েছে ৪০ জনের বেশি জঙ্গি। আর গত ৬ মাসে মোট ১১৬ জনের বেশি জঙ্গিকে নিকেশ করেছেন ভারতীয় নিরাপত্তারক্ষীরা। তার মধ্যে সাতটি পৃথক জঙ্গি সংগঠনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কমান্ডাররাও রয়েছে।

[আরও পড়ুন: লাদাখে অব্যাহত লালফৌজের আগ্রাসন, বিবাদ মেটাতে প্রতি সপ্তাহে বৈঠকের ভাবনা দু’দেশের]

The post কাশ্মীরের অনন্তনাগে রাতভর গুলির লড়াই, খতম হিজবুল কমান্ডার-সহ ৩ জঙ্গি appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next