Advertisement

TMC in Tripura: প্রথম কর্মী সম্মেলনের আগে তৃণমূলকে বাধা, বিচ্ছিন্ন প্রেক্ষাগৃহের বিদ্যুৎ সংযোগ

04:09 PM Sep 03, 2021 |
Advertisement
Advertisement

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ত্রিপুরায় (Tripura) সবে সংগঠন বাড়াচ্ছে এ রাজ্যের শাসকদল। মাটি শক্ত করতে টানা ১৫ দিনের কর্মসূচি নিয়ে সেখানে গিয়েছেন সদ্য তৃণমূলে যোগ দেওয়া উত্তর-পূর্বের জনপ্রিয় নেত্রী সুস্মিতা দেব (Sushmita Dev)। তিনি সেখানে যাওয়ার পর থেকেই তৃণমূল কর্মী, সমর্থকদের উপর হামলা যেন আরও বাড়ছে। বৃহস্পতিবার সুস্মিতার সঙ্গে মন্দিরে পুজো দিয়ে বাড়ি ফেরার পর সন্ধেবেলা দুই সমর্থকের বাড়িতে ঢুকে হামলার অভিযোগ ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধে। ওই দুজন আগরতলার হাসপাতালে ভরতি। আর শুক্রবার সকালে ত্রিপুরায় তৃণমূলের প্রথম কর্মী সম্মেলনেও এল বাধা।

Advertisement

যে অডিটোরিয়ামে কর্মী সম্মেলন হওয়ার কথা, সেখানকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হল। ফলে অন্তত আড়াই ঘণ্টা ধরে আটকে রইল দলীয় কর্মসূচি। অভিযোগের তির সেখানকার বিজেপি (BJP) সরকারের বিরুদ্ধে। যদিও কোনও বাধার মুখেই নত হয়নি তৃণমূল নেতৃত্ব। পরে জেনারেটের ভাড়া করে বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়। তারপর দুপুর সাড়ে ১২টা নাগাদ শুরু হয় কর্মী সম্মেলন। এ নিয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব।

[আরও পড়ুন: JDU MLA: অন্তর্বাস পরেই রাজধানী এক্সপ্রেসে ঘোরাফেরা! জেডিইউ বিধায়কের অর্ধনগ্ন ছবি ভাইরাল]

শুক্রবার ম্যারাথন কর্মসূচি রয়েছে এ রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের রাজ্য কমিটির সদস্য ব্রাত্য বসু (Bratya Basu) এবং নেত্রী সুস্মিতা দেবের। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত দলীয় কর্মীদের নিয়ে মোট চারটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা তাঁদের। এদিন প্রথমে পদযাত্রার পর আগরতলার দশরথ দেব ভবনে প্রথম তৃণমূলের কর্মী সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল সকাল ১০টায়। ভবনে ৫০ শতাংশ দর্শকের হাজির থাকার কথা। কিন্তু দেখা গেল, প্রেক্ষাগৃহের সব বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাই বলে কর্মী সম্মেলন তো বন্ধ করে দেওয়া যায় না।

স্থানীয় তৃণমূল নেতা, কর্মীরা পিছু না হঠে নিজেরাই জেনারেটরের ব্যবস্থা করেন। এরপর আড়াই ঘণ্টা পর দুপুর সাড়ে ১২ টা নাগাদ শুরু হয় কর্মী সম্মেলন। এ নিয়ে ত্রিপুরা তৃণমূলের সভাপতি আশিসলাল সিং বলেন, ”এই অবস্থাতেই আমরা কর্মসূচি করছি। কোনও বাধার মুখেই আমরা পিছিয়ে যাব না।” বিকেলের পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হতে পারেন ব্রাত্য বসু, সুস্মিতা দেব। বিপ্লব দেবের রাজ্যে কীভাবে বারবার তৃণমূলকে বাধা দেওয়া হচ্ছে, তা নিয়ে সরব হতে পারেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: TMC In Tripura: তৃণমূলের শক্তি বাড়তেই ইস্তফা ত্রিপুরার স্পিকার রেবতীমোহন দাসের, বাড়ছে গুঞ্জন]

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার রাতে যে দুই তৃণমূল সমর্থককে বাড়িতে ঢুকে মারধর করা হয়েছিল, তাঁরা এখন ভরতি আগরতলার জিবি হাসপাতালে। এদিন সেখানে তাঁদের দেখতে যাচ্ছেন জয়া দত্ত, সুজাতা খাঁ। ত্রিপুরায় তৃণমূলের দায়িত্বপ্রাপ্ত তৃণমূল নেতৃত্বের পাশাপাশি সুজাতাও এই মুহূর্তে ত্রিপুরায় রয়েছেন দলীয় নেতৃত্বের নির্দেশে।

Advertisement
Next