Advertisement

তৃণমূলের জন্যই জিএসটির আওতায় আসেনি পেট্রল-ডিজেল, দাবি বিজেপি রাজ্য সভাপতির

06:31 PM Sep 22, 2021 |

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: তৃণমূলের জন্যই কমছে না পেট্রোপণ্যের দাম! বুধবার এমনই অভিযোগ করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)। এদিন ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের প্রচারে বেরিয়েই এমন তোপ দাগলেন তিনি।। কিন্তু কেন এহেন অভিযোগ?

Advertisement

তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় অভিযোগ করেছিলেন, বিজেপির জন্যই সারা দেশে অগ্নিমূল্য পেট্রোপণ্য, রান্নার গ্যাস। এর জবাব দিতে গিয়েই মূল্যবৃদ্ধির জন্য তৃণমূলকেই দায়ী করলেন সুকান্তবাবু। তাঁর কথায়, “পেট্রোপণ্য জিএসটির আওতায় আসুক তা চায় না তৃণমূল। বৈঠকে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে তারা।” এর পরই তৃণমূল সাংসদকে কটাক্ষ করে বিজেপি নেতা বলেন, “আপনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে লিখিয়ে আনুন। যাতে পেট্রোপণ্য জিএসটির আওতায় আনার সিদ্ধান্ত তিনি সমর্থন করেন। রাজ্য সরকার যাতে এই সিদ্ধান্ত সমর্থন করে।”

[আরও পড়ুন: WB By-Election: তোমারে বধিবে যে ভবানীপুরে বাড়িছে সে! বিজেপিকে দেশছাড়া করার ডাক মমতার]

গত ১৭ সেপ্টেম্বর বৈঠকে বসেছিল জিএসটি (GST) কাউন্সিল। উদ্দেশ্য ছিল, পেট্রোপণ্যকে জিএসটির আওতায় আনা যায় কিনা তা নিয়ে আলোচনা করা। কিন্তু কেন্দ্রের এই প্রস্তাবের বিরোধিতায় একযোগে সরব হয় বেশ কয়েকটি রাজ্য। বিরোধিতায় অংশ নেয় খোদ বিজেপিশাসিত একাধিক রাজ্য। বিরোধিতা করেছিল তৃণমূলও (TMC)। তাই আপাতত পেট্রল ও ডিজেল জিএসটির আওতার বাইরেই থাকছে। যার জেরে জ্বালানির দাম কমার সম্ভাবনা আপাতত নেই বলেই মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

Advertising
Advertising

রাজনৈতিক মহল বলছে, তৃণমূল একা বিরোধিতা করলে কেন্দ্রের এই প্রস্তাব কার্যকর করতে বাধা তৈরি হত না। কিন্তু ভূত তো রয়েছে সরষেতেই। বিজেপিশাসিত রাজ্যগুলিই বেঁকে বসেছে। আর তাই কেন্দ্র এই প্রস্তাব কার্যকর করতে পারেননি। ভবানীপুরের উপনির্বাচনের প্রচারে বেরিয়ে মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিজেপি নেতৃত্বকে বারবার বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে। সেই আক্রমণ এড়াতেই সুকান্ত মজুমদার তৃণমূলের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনল বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

[আরও পড়ুন: ‘বাবা-মাকে অসম্মান করা হয়েছে, সম্পত্তি নেব না’, ইরা বসুর নমিনি হতে নারাজ বুদ্ধদেবকন্যা সুচেতনা]

Advertisement
Next