Advertisement

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়, আদালতের নির্দেশে থাকবেন গৃহবন্দি

08:16 PM May 25, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবশেষে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। প্রেসিডেন্সি জেল হয়ে বাড়ি ফিরবেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী। নারদ কাণ্ডে (Narada Scam) গ্রেপ্তার হওয়ার পরের দিনই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভরতি হয়েছিলেন তিনি।

Advertisement

নারদ কাণ্ডে গত ১৭ মে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee), ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্র ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। প্রথমে অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভরতি হন শোভন ও মদন। ১৮ মে সকালে অসুস্থতার কারণে এসএসকেএম-এ ভরতি করা হয় মন্ত্রী সুব্রতকেও। তারপর থেকেই চলছিল তাঁর চিকিৎসা। ডাক্তাররা জানিয়েছিলেন, ভোকাল কর্ডে সমস্যা দেখা দিয়েছে সুব্রতর। তুলনামূলকভাবে স্থিতিশীল থাকলেও উৎকণ্ঠা জনিত কারণে রক্তচাপ ও সুগারের মাত্রা ওঠানামাও করছিল তাঁর। একাধিক পরীক্ষাও করা হয়েছিল তাঁর। তবে আপাতত তিনি সুস্থ আছেন। সেই কারণেই বাড়ি ফেরার অনুমতি পেয়েছেন।

[আরও পড়ুন: হুগলিতে প্রবল ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বহু বাড়ি, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত ২, সতর্ক থাকার বার্তা মমতার]

এদিন সন্ধে সাড়ে ৭টা নাগাদই হাসপাতাল থেকে ছুটি পান তিনি। সেখান থেকে বেরিয়ে সোজা প্রেসিডেন্সি জেলে যান। সেখানকার আইনি নিয়ম মিটিয়ে বাড়ি পৌঁছবেন। তবে হাই কোর্টের নির্দেশে আপাতত গৃহবন্দিই থাকতে হবে তাঁকে। বাড়িতে বসে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রশাসনিক কাজকর্ম করতে পারবেন সুব্রত।

উল্লেখ্য, এর আগেই ব্যক্তিগত বন্ডে সই করে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। আপাতত তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলেই খবর। তবে এখনও মদন মিত্রকে নিয়ে চিন্তিত চিকিৎসকরা। তাঁর নাকে টিউমারও ধরা পড়েছে। তাই এখনও বাড়ি যাওয়ার ছাড়পত্র পাননি কামারহাটির বিধায়ক।

এদিকে, ঘূর্ণিঝড় যশের জন্য ২৬ ও ২৭ মে অর্থাৎ বুধ এবং বৃহস্পতিবার কলকাতা হাই কোর্ট (Calcutta HC) বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যার জেরে নারদ মামলায় ৪ হেভিওয়েট নেতার জামিনের শুনানি আরও পিছিয়ে গেল। আপাতত আরও বেশ কয়েকদিন তাঁদের গৃহবন্দিই থাকতে হবে।

[আরও পড়ুন: কোকেন কাণ্ডে ধৃত রাকেশ সিংয়ের সঙ্গে রাজ্যপাল! ছবি পোস্ট করে ধনকড়কে তীব্র কটাক্ষ কল্যাণের]

Advertisement
Next