BJP ছেড়ে CPM-এ যোগ অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায়, রুপা ভট্টাচার্যর! ক্ষোভ উগরে দিলেন শ্রীলেখা-রাহুল

11:04 PM Aug 16, 2021 |
Advertisement

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: বিজেপি ছাড়লেন টলিউডের দুই অভিনেতা অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায় ও রুপা ভট্টাচার্য! যোগ দিলেন বাম শিবিরে। সোমবার সিপিএম পরিচালিত যাদবপুর শ্রমজীবী ক্যান্টিনের ৫০০ দিনের অনুষ্ঠানে মিছিলে হাঁটেন এই দুই অভিনেতা। ছিলেন বিমান বসু-সহ সিপিএমের শীর্ষনেতৃত্ব ও টলিউডের বেশ কিছু পরিচিত মুখ। কিন্তু গেরুয়া শিবির ত্যাগ করে রাতারাতি বামফ্রন্টের হাত ধরার বিষয়টি কোনওভাবেই মন থেকে মেনে নিতে পারছেন না ‘কমিউনিস্ট’ শ্রীলেখা মিত্র, রাহুল বন্দোপাধ্যায়রা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ ও অভিমানের বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে তাঁদের। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, বিজেপি ছেড়ে এসে সিপিএমে যোগ দেওয়া কারও সঙ্গে তাঁরা মঞ্চ ভাগ করে রাজি নন।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

টানা ৫০০ দিন লকডাউনে দরিদ্র মানুষের মুখে ভাত তুলে দেওয়ার দায়িত্ব নিয়েছিল যাদবপুর শ্রমজীবী ক্যান্টিন। মাঝে একদিনের জন্যও বন্ধ হয়নি। প্রতিদিনই প্রায় ৭০০ মানুষের মুখে ভাত তুলে দেয় সিপিএমের ছাত্র-যুবরা। তাই সোমবার সেখানে হাজির হন বিমান বসু, মহম্মদ সেলিম, সুজন চক্রবর্তী, বিকাশ ভট্টাচার্যরা। আর তাঁদের সঙ্গেই যাদবপুর 8B বাস স্ট্যান্ড থেকে শুরু হওয়া মিছিলে হাঁটেন দলত্যাগী টলিপাড়ার দুই অভিনেতা। রুপা ভট্টাচার্য জানান, একটা দল বিধানসভায় শূন্য হয়ে যাওয়ার পরেও এই ধরনের কাজ করে যাচ্ছে। তাই সেই দলকে সমর্থন না করে ঘরে বসে থাকা যায় না। তাই এই মিছিলে হাঁটছেন। দিন কয়েক আগে বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায়ও। আর এবার সিপিএমের মিছিলে এসে নিজের নতুন অবস্থান স্পষ্ট করলেন।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1628750382106-0'); });
googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1628750799038-0'); });
রূপা ভট্টাচার্য

[আরও পড়ুন: সেপ্টেম্বরে নয়, চলতি মাসেই মা হবেন Nusrat? টলিপাড়ায় জোর গুঞ্জন]

কিন্তু তাঁদের উপস্থিতিতে একেবারেই স্বাগত জানাতে পারছেন না শ্রীলেখা। দীর্ঘ পোস্টে দুই অভিনেতার নাম না করেই দলের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। জানিয়ে দেন, যে দলের প্রচারে তিনি বারবার স্বেচ্ছায় এগিয়ে গিয়েছেন, যে মতাদর্শে তিনি বিশ্বাস, সেখান থেকে এই বিষয়টিকে কখনওই সমর্থন জানাতে পারবেন না।

Advertising
Advertising

তিনি লেখেন, “নিজেকে কমিউনিস্ট বলার অডাসিটি আমার নেই, কিন্তু হ্যাঁ আমার দ্বারা পরিচালিত সারা জীবন বাম মতাদর্শ অনুসরণ করেছি । তোমার কি মনে হয় আমি অন্য ক্ষমতাসীন দলের কাছে যাইনি? ওহ কিন্তু এমনকি প্রার্থীর জন্য একটি টিকিটও? . ছেলেরা যদি মেনে নেয়, তাহলে আমি নিশ্চিত জীবন অনেক সহজ হতে পারতো তাই না? বরং, আমার আদর্শ ও বিশ্বাসের জন্য দাঁড়ানোর জন্য বেছে নিয়েছি, তাই প্রয়োজন অনুযায়ী অভিযোগ ছাড়াই সিপিআইএম এর জন্য প্রচারণা চালিয়েছি । এখন আমার বিরোধের হাড়ে আসছে ।

যে শিল্প প্যারেড ঈশ্বরের সঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিয়েছে তারা জানে তাদের কি আদর্শ বা বিশ্বাস সবচেয়ে ভালো, যার মধ্যে কয়েকজন টিকিট পেয়েছে বাকিরা প্রয়াত স্টার প্রবেশের জন্য (manusher jonno kaj korte chawar dol). আমি নিশ্চিত যে এটি বাকিদের জন্য একটি বিশাল আঘাত ছিল । দৃশ্যত তাদের মধ্যে কয়েকটি কোট পরেছে YET AGAIN এবং বর্তমানে দেখা যাচ্ছে সিপিএম রান যাদবপুর শ্রোমোজিবি ক্যান্টিনের ডেইসে!!!!!!!
যদি তারা এর ভাঁজে অন্তর্ভুক্ত হয়, যুক্তি আমরা উদার, তাহলে আমি সিপিআইএম এর কোন সমিতি এবং কার্যক্রম ছেড়ে দেই । (Eta bolchi onek opoman r kosto niye) এই একই লোক প্রকাশ্যে আমাদের সমালোচনা করেছিল, আমাকে চিপিম, চিলেখা আমাকে প্রকাশ্যে আইনি নোটিশ দিয়ে হুমকি দিয়েছিল, দুঃখিত আমি তাদের সাথে একই প্ল্যাটফর্ম শেয়ার করতে দেখতে পাচ্ছি না। আমি আহত.. আমি ক্লান্ত বোধ করছি, আমি দুঃখিত দুঃখিত।”

[আরও পড়ুন: মন্দারমণিতে ‘শ্যামা’র বার্থডে সেলিব্রেশন, স্পেশ্যাল কী গিফ্ট পেলেন অভিনেত্রী Tiyasha Roy?]

একইরকমভাবে ফেসবুক পোস্টে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন অভিনেতা রাহুলও। লিখেছেন, নিজের মতাদর্শে অনড় থাকতে কোনও দলের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকার তাঁর প্রয়োজন নেই।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Advertisement
Next