লন্ডন থেকে কলকাতা ফেরত ২ যাত্রীর করোনা, নতুন প্রজাতির সংক্রমণ নয় তো? বাড়ছে উদ্বেগ

01:14 PM Dec 22, 2020 |
Advertisement

কলহার মুখোপাধ্যায়: করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) আতঙ্কে কাঁটা তামাম বিশ্ববাসী। তার মাঝেই আবার অস্তিত্ব রক্ষার তাগিদে চরিত্র বদল করে আরও ভয়ানক রূপ নিয়েছে ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ভাইরাস। সব মিলিয়ে ত্রাহি ত্রাহি রব। এই পরিস্থিতিতে লন্ডন থেকে কলকাতায় ফেরা দুই যাত্রীর শরীরে মিলেছে করোনার নমুনা। তবে তাঁরা নতুন ধরনের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা, তা পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

Advertisement

গত রবিবার লন্ডন থেকে একটি বিমান দমদম বিমানবন্দরে (Netaji Subhash Chandra Bose International Airport) এসে পৌঁছয়। সেই উড়ানে থাকা দুই যাত্রীর শরীরে মিলেছে করোনার নমুনা। তবে তাঁদের শরীরে কোনও উপসর্গ ছিল না। নিয়মমাফিক পরীক্ষা করার পরই তা জানা গিয়েছে। আপাতত দু’জনকে নিউটাউনে সেফ হোমে রাখা হয়েছে। তাঁদের সংস্পর্শে আসা প্রত্যেককেই কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। ওই বিমানে থাকা কর্মীদেরও পাঠানো হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে। তবে তাঁরা নতুন ধরনের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা, তা এখনও জানা যায়নি। তাঁদের নমুনা পুণেতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এদিকে, বিদেশ থেকে ফেরা যাত্রীদের দিকে কড়া নজর রাজ্যের। ইতিমধ্যেই রাজ্যের তরফে শুরু হয়েছে কনট্যাক্ট ট্রেসিংয়ের কাজ। এছাড়া বিদেশ থেকে ফেরা যাত্রীরা কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মানছেন কিনা, তাও বারবার খতিয়ে দেখছে রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর।

[আরও পড়ুন: জোড়াসাঁকোয় প্রৌঢ়া খুনের রহস্যভেদ করল পুলিশ, গ্রেপ্তার গাড়িচালক]

এদিকে, সোমবার রাতে লন্ডন থেকে নিউ দিল্লি (New Delhi) বিমানবন্দরে এসে পৌঁছনো একটি বিমানেরও পাঁচজন যাত্রী করোনা আক্রান্ত। তাঁরাও নতুন ধরনের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা এখনও জানা যায়নি। নমুনা পরীক্ষা করে তবেই সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া সম্ভব বলেই জানিয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে দিল্লি হয়ে চেন্নাই ফেরত দু’জনের শরীরেও মিলেছে করোনার হদিশ তাঁদের আপাতত কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। নতুন ধরনের ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা জানতে নমুনা পরীক্ষায় পাঠানো হয়েছে।

Advertising
Advertising

উল্লেখ্য, ব্রিটেনে অবতীর্ণ করোনা ভাইরাস আরও মারণ, আরও শক্তিশালী (New And Highly Infectious Strain)। দ্বিগুণ গতিতে সংক্রমণ ছড়ানোর ক্ষমতা রাখে। সাধারণ কোভিডের তুলনায় মানব শরীরে ক্ষতি করতে পারে ৭০ শতাংশ বেশি। নতুন প্রজন্মের এই ভাইরাসে সবমিলিয়ে ১৭টি চরিত্রগত পরিবর্তন লক্ষ্য করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তার মধ্যে অ্যামিনো অ্যাসিড রিপ্লেসমেন্ট ১৪টি। ৩ টে ডিলিসন মিউটেশন। নতুন ভাইরাসের ছোবলে ইতিমধ্যে ৬০ শতাংশ সংক্রমণ বেড়ে গিয়েছে লন্ডনে। ব্রিটেনে নতুন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। শুধু ব্রিটেন নয়, দক্ষিণ আফ্রিকাতেও মিলেছে করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেন। নতুন চরিত্রের ভাইরাস মৃত্যুহার কতটা বাড়াবে তা গবেষণার বিষয়। তবে ভ্যাকসিন নতুন চরিত্রের ভাইরাসের বিরুদ্ধে কতটা কার্যকর হবে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। নতুন ধরনের করোনা ভাইরাস আক্রান্ত একজনও দেশে ঢুকে পড়লেই হতে পারে বড়সড় বিপদ। তাই ২২ ডিসেম্বর-৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্রিটেন থেকে ভারত আসার সমস্ত বিমান বাতিল করেছে কেন্দ্র।

[আরও পড়ুন: জোড়াসাঁকোর প্রৌঢ়া খুনে ক্রমশ ঘনাচ্ছে রহস্য, সন্ধান চলছে ‘স্টোনম্যানে’র অস্ত্রের]

Advertisement
Next