Advertisement

জুতোর হিলে লুকিয়ে ভয়ানক বিপদ, এড়াবেন কীভাবে? পরামর্শ দিলেন চিকিৎসক

04:36 PM Oct 12, 2021 |

প্রথমে কিছু বোঝা যায় না। টানা হিল জুতো পরার অভ্যাস পায়ের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে। পুজোর সময় তাই সাবধান করলেন অর্থোপেডিক ডা. কিরণ মুখোপাধ্যায়। শুনলেন প্রীতিকা দত্ত।

Advertisement

পুজোতে করোনা আতঙ্ক থাকলেও, কেনাকাটার সঙ্গে নো কম্প্রোমাইজ। জামা, জুতো না কিনলে ঠিক পুজো পুজো মনেই হয় না। টিকা নেওয়া থাকলে, করোনাবিধি মেনে একটু-আধটু ঠাকুর দেখা তো চলতেই পারে, তাই নতুন জুতো কিনবেন না, তা হয় নাকি! তবে হিল জুতো কিনে থাকলে ভেবে পা গলান। হিল পরে স্মার্ট হতে গিয়ে নিজের বিপদ ডেকে আনবেন না।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

আসলে, সাধারণত মানবশরীর ফ্ল্যাট পায়ের পাতার উপর দাঁড়িয়ে থাকে। যে কারণে, ফ্ল্যাট চপ্পল বা জুতোর কোনও বিকল্প হয় না। তবু ফ্যাশনের প্রয়োজনে হাই হিল অনেকেই পরেন। হাই হিল পরার পর আঙুলের দিকে অর্থাৎ টোয়ের দিকে ভর দিতে হয় বেশি। কিন্তু সাধারণভাবে, স্বাভাবিক অবস্থায় পা বা গোড়ালি বহন করে শরীরের ৬০ শতাংশ ওজন। ফলে হিল পরলে তা থেকে বিপত্তি যে বাধবে, তাতে সন্দেহ নেই।

[আরও পড়ুন: শুধু শাড়ি কিনলেই তো আর হল না, জেনে নিন পুজোর বাজার কাঁপাচ্ছে কোন ধরনের ব্লাউজ]

ক্ষতি লম্বা

  • ১১ থেকে ১৪ বছরের কিশোরীদের হিল পরা অনুচিত। কারণ, এটা বাড়ার বয়স (গ্রোয়িং এজ)। এই সময় পায়ে গঠনগত ত্রুটি হলে তা সারাজীবন থেকে যাবে।
  • দীর্ঘক্ষণ হিল পরলে পায়ে ব্যথা হয়। এটা সকলের জানা। সেই সঙ্গে ‘হ্যামার টো’ হওয়ার আশঙ্কাও বাড়ে। হ্যামার টো অর্থাৎ অনেকদিন হিল পরে হাঁটাচলার কারণে টোয়ের আকৃতি বদলাতে থাকে।
  • অনেকে আবার স্টিলেটো পরেন। সেক্ষেত্রে জুতোর সামনের দিকটা হয় খুব সরু হয়। দীর্ঘদিন এই টোয়ের দিকটা চাপা জুতো পরার ফলে ‘বুনিয়ন’ হয়। আসলে একটা আঙুলের উপর আর একটা আঙুল খুব চেপে উঠে থাকলে সমস্যা তো হবেই।

  • হাই হিল পরার ফলে গোড়ালিতে ব্যথা হয়। জুতো খোলার পর গোড়ালির নিচের দিকে জ্বালা-জ্বালা ভাব থাকে। চিকিৎসার ভাষায় যাকে বলে ‘প্লান্টার ফ্যাসাইটিস’।
  • অনেকের আবার পায়ের মাসলে ব্যথা হয়। উঁচু হিলে পা মচকে পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে, সে তো আলাদা।
  • ব্রিটেনের একটি সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, ইংরেজদের দেশে নাকি হাই হিল স্যান্ডেল পরার ফলে পড়ে গিয়ে ফ্র্যাকচার হচ্ছে অনেক বেশি। হিল পরলে হাঁটু সামান্য ভাঁজ হয়ে থাকে। সেখানেও সমস্যা আসতে পারে। হাঁটু সামান্য ভাঁজ হয়ে থাকায় টিবিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে কম বয়সেই অস্টিওআর্থ্রাইটিস ধরতে পারে।

[আরও পড়ুন: পরাও যাবে আবার খিদে পেলে খাবারের মতো খাওয়াও যাবে, অভিনব শাড়ি বানিয়ে চমক শিল্পীর]

বাঁচাতে পারে ফ্ল্যাট
ফ্যাশনিস্তাদের কাছে কোটি টাকার প্রশ্ন হল, তাহলে কি হিল পরা হবে না? সহজ উত্তর, আলবাত পরবেন। তবে হিলের সাইজ হবে এক থেকে দেড় ইঞ্চি। আর যদি অনুষ্ঠান বিশেষে আরও উঁচু হিল পরার শখ হয়, তাহলে তা তিন ঘণ্টার বেশি নয়। দরকার হলে ব্যাগে জুতো নিয়ে যান। অনুষ্ঠানে ঢোকার আগে হিল জুতো পরুন। অনুষ্ঠান শেষে আবার ফ্ল্যাট চটি পরুন। শুনতে অবাক লাগলে জানিয়ে রাখি, উঁচু হিল খুলে রাখার পর অবশ্যই পায়ের পাতার এক্সারসাইজ (পায়ের নিচে বল রেখে রোল) করুন। বাড়ি ফিরে হিল খুলে রেখে গরম জলে পা ডুবিয়ে রাখুন। এবং ঘরে খালিপায়ে হাঁটার অভ্যাস করুন।

Advertisement
Next