shono
Advertisement

Breaking News

যুবভারতীতে মোহনবাগানের সামনে নর্থইস্ট, প্রতিপক্ষকে হালকা ভাবে দেখতে নারাজ হাবাস

আরও একবার হাবাস ম্যাজিক দেখার অপেক্ষায় মোহনবাগান সমর্থকরা।
Posted: 07:36 PM Feb 16, 2024Updated: 08:27 PM Feb 16, 2024

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আত্মবিশ্বাসে এখন ভরপুর মোহনবাগান (Mohun Bagan)। আন্তোনিও লোপেজ হাবাস (Antonio Lopez Habas)  দলের দায়িত্ব নেওয়ার পর পুরোদস্তুর বদলে গিয়েছে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। সিংহের গুহায় ঢুকে সিংহশিকার করে এসেছে মোহনবাগান। গোয়ায় গিয়ে গোয়াকে হারানো কঠিন। সেই কঠিন কাজটাই করে এসেছে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। তাই তাদের সাজঘরে এখন দখিনা বাতাস বইছে।
গোয়ার বিরুদ্ধে যে পারফরম্যান্স দেখিয়েছিল সবুজ-মেরুন, তার ঝলক শনিবার দেখাতে পারলেই কেল্লা ফতে। শনিবার যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে মোহনবাগানের সামনে নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড (ISL)। যারা আগের ম্যাচেই ইস্টবেঙ্গলকে হারিয়েছে। নর্থ-ইস্ট ম্যাচের আগে হাবাস বলেন, ”নর্থইস্ট দলে একজন ভাল কোচ আছেন। ভাল দল ওরা। প্রতিপক্ষ হিসেবে কঠিন। ওরা বিভিন্ন সিস্টেমে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলছে। ওদের প্রতিপক্ষদের কাউন্টারে ওঠা কঠিন হয়ে যায়। গত ম্যাচে ওরা ভাল খেলেছে, জয়ও পেয়েছে।” 

Advertisement

[আরও পড়ুন: সরফরাজে মুগ্ধ, ‘নেপথ্য কারিগর’ বাবা নওশাদকে গাড়ি উপহার দিলেন আনন্দ মাহিন্দ্রা]

পাঁচ দিনে দুটি ম্যাচ খেলে ফেলেছে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড। সেই ক্লান্তি একটা ফ্যাক্টর হতে পারে। তবে হাবাস আছেন বলেই সব সম্ভব। স্প্যানিশ কোচ বলছেন, ”নর্থইস্টের বিরুদ্ধেও আমাদের লক্ষ্য একই, তিন পয়েন্ট অর্জন করা। তিন দিন আগেই গোয়ায় সম্পুর্ণ অন্য আবহাওয়ায় ম্যাচ খেলে, সেখান থেকে ফিরে এসে এই ম্যাচে নামতে হচ্ছে আমাদের। কাজটা কঠিন। তবে কোনও অজুহাত দেব না। আমাদের ম্যাচটা খেলতে হবে। দেখা যাক কাদের নিয়ে শুরু করতে পারি আর কাদের রিজার্ভ বেঞ্চে রাখতে হবে। টেকনিক্যাল স্টাফদের সাহায্য নিয়ে খেলোয়াড় পরিবর্তন করতে হবে ম্যাচে। যাতে সব খেলোয়াড়েরই খেলার সময়ের মধ্যে একটা ভারসাম্য থাকে।”  
নর্থইস্টের বিরুদ্ধে জনি কাউকো শুরু থেকে খেলবেন কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। কাউকো সম্পর্কে হাবাস বলছেন, ”একশো শতাংশ ফিট। ও ১২ মাস ফুটবল খেলেনি জনি। ও একজন পেশাদার ফুটবলার, আন্তর্জাতিক ফুটবলের অভিজ্ঞতাও ওর আছে। আমাদের খেলোয়াড়দের যথাসম্ভব দ্রুত চাঙ্গা হয়ে উঠতে হবে। গোয়ার হোটেলেই আমরা রিকভারি সেশন করেছি, তার পর কলকাতায় রওনা হয়েছি।”
দীপেন্দু বিশ্বাসকে নিয়ে আশাবাদী মোহনবাগান কোচ। তিনি বলছেন, ”ওর খেলায় আমি খুশি। ওর সামনে দীর্ঘ ফুটবল জীবন। সিনিয়রদের দলে ওকে রাখা যেতে পারে। অনুশীলনে ওকে দেখার পর থেকেই আমার স্টাফদের সঙ্গে ওর ব্যাপারে কথা বলেছি, যাতে ওকে খেলানো যায়। এখন তো ও পাশে হেক্টর ইউস্তের মতো খেলোয়াড় পেয়ে গিয়েছে। ওর পরামর্শও খুবই প্রয়োজন দীপেন্দুর।” চোট সারিয়ে দলে ফিরতে পারেন  আনোয়ার আলিও। তবে নর্থইস্টের বিরুদ্ধে আনোয়ার আলিকে শুরু থেকে নামাবেন কিনা সেব্যাপারে কিছু বলেননি হাবাস। স্প্যানিশ কোচ বলেন, ”আনোয়ারের ব্যাপারে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নিইনি। কাল দেখব ও কেমন থাকে, তার পরে সিদ্ধান্ত নেব।”
শনিবার আরও একবার হাবাস-ম্যাজিক দেখার অপেক্ষায় মোহনবাগান ভক্তরা। 

 

[আরও পড়ুন: পাখির চোখ প্লে অফ, হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে চার বিদেশিকেই পাচ্ছেন কুয়াদ্রাত]

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

Advertisement