ফের বন্দুকবাজের হামলা আমেরিকায়, সপ্তাহান্তে শিকাগোয় মৃত অন্তত পাঁচ

12:06 PM Jun 13, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমশই প্রশ্নের মুখে পড়ছে মার্কিন নাগরিকদের নিরাপত্তা। পরপর বন্দুকবাজদের হানায় বিপর্যস্ত আমেরিকা (USA)। এহেন পরিস্থিতিতে শনিবার ফের হামলা হল আমেরিকার শিকাগোতে। শহরের নানা প্রান্তে অজ্ঞাতপরিচয় বন্দুকবাজদের হানায় প্রাণ হারালেন পাঁচ মার্কিন নাগরিক। আহত হয়েছেন আরও ১৬ জন। ঘটনার তদন্ত শুরু হলেও এখনও কাউকে আটক করা হয়নি।

Advertisement

শিকাগো (Chicago Gunman Shooting) পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রাস্তায় চলাফেরা করার সময়ে তারা গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গিয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুর প্রথম ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার বিকেলে। ২৫ বছর বয়সি এক যুবকের দিকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করে চিকিৎসকরা। ওই দিন রাতেই ফের মৃত্যু হয় ২৬ বছর বয়সি এক যুবকের। তিনি গাড়িতে যাচ্ছিলেন। সেই সময়ে আচমকা পাশের একটি গাড়ি থেকে তাঁর দিকে গুলি চালানো হয়। বুকে গুলি লেগে মৃত্যু হয় তাঁর।

[আরও পড়ুন: মোদির চাপেই বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের বরাত পায় আদানিরা! বিস্ফোরক শ্রীলঙ্কার শীর্ষকর্তা]

শনিবার আরও বেড়ে যায় বন্দুকবাজের হানা। সপ্তাহান্তে ভিড়ের মধ্যে ৩৭ বছরের এক মহিলাকে গুলি করে পালিয়ে যায় আততায়ীরা। মাথায় ও বুকে গুলি লাগে ওই মহিলার। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলেও বাঁচানো যায়নি তাঁকে। গাড়ির মধ্যে ৩৪ বছর বয়সি এক যুবককেও গুলি করা হয়। হাসপাতালে তাঁকেও মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। শনিবারের শেষ বন্দুকবাজের হানার ঘটনাটি ঘটে একটি গলির মধ্যে। চারজন ব্যক্তি রাস্তায় হাঁটছিলেন। সেই সময়েই একটি চলন্ত গাড়ি থেকে তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। সকলেই গুলিবিদ্ধ হন। হাসপাতালে গিয়ে তাঁদের মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়।

Advertising
Advertising

ক্রমাগত এই ধরনের হামলার বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন মার্কিন নাগরিকরা। শনিবারই আমেরিকার নানা প্রান্তে প্রায় হাজার জন মিছিল করে বন্দুক কেনার আইন বদলের দাবি করেছেন। মার্কিন সংসদের তরফে বলা হয়েছে, বন্দুক কেনার আইন বদল করতে নতুন নির্দেশিকা জারি করা হবে।  ২১ বছরের কম বয়সিদের বন্দুক কেনায় কড়াকড়ি করা হবে জানানো হয়েছে। তবে এই পদক্ষেপ খুবই নগণ্য বলে দাবি করেছেন নাগরিকদের একাংশ। 

[আরও পড়ুন: যুদ্ধের আবহে কূট চাল রাশিয়ার, ইউক্রেনীয়দের নিজেদের নাগরিক দাবি করে পাসপোর্ট দিচ্ছে পুতিনের দেশ!

 

Advertisement
Next