Advertisement

উদ্বেগ কাটছে না দ্বিতীয় এলিজাবেথের স্বাস্থ্য নিয়ে, গ্লাসগো সম্মেলনেও থাকছেন না রানি

01:04 PM Oct 28, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উদ্বেগ আর কাটছে না রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের (Queen Elizabeth II) স্বাস্থ্য নিয়ে। সম্প্রতি তাঁর একরাত হাসপাতালে কাটানো নিয়েও নানা গুঞ্জন ছড়িয়েছিল। যদিও বাকিংহাম প্যালেসের তরফে জানানো হয়েছে রানি আপাতত সুস্থই আছেন। কিন্তু নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের সফর বাতিল করার পরে এবার স্কটল্য়ান্ডের গ্লাসগোয় বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনেও থাকছেন না ব্রিটেনের রানি। যা নিয়ে নতুন করে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

Advertisement

তবে বাকিংহাম প্যালেসের তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনেই আপাতত বিশ্রামে রাখা হয়েছে ৯৫ বছরের এলিজাবেথকে। রাজ পরিবারের তরফে পেশ করা ওই বিবৃতে বলে হয়েছে, ”রানি অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানিয়েছেন তিনি গ্লাসগো সম্মেলনে থাকতে পারবেন না। চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে উইনসর কাসলেই বিশ্রাম নেবেন তিনি। কিন্তু আগত প্রতিনিধি দলের উদ্দেশে একটি ভিডিও বার্তা দেবেন তিনি।” তবে রানি না থাকতে পারলেওও অনুষ্ঠানে থাকবেন তাঁর ছেলে যুবরাজ চার্লস ও সস্ত্রীক রাজকুমার উইলিয়াম।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: চিনকে কড়া বার্তা দিয়ে তাইওয়ানের কাছে সমুদ্রে শক্তিপ্রদর্শন মার্কিন রণতরীর]

এর আগে গত সপ্তাহে আয়ারল্যান্ডের বেলফাস্টে দেশভাগের শতবর্ষ পালন অনুষ্ঠান থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন রানি। সেই সময়ও জানানো হয়েছিল চিকিৎসকদের পরামর্শেই এই সিদ্ধান্ত। গত সপ্তাহেই একরাতের জন্য হাসপাতালে ভরতি হতে হয়েছিল এলিজাবেথকে। তবে সেই সময় রাজ পরিবারের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল নিয়মমাফিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য়ই তাঁকে ভরতি করা হয়েছে। এবার গ্লাসগো সম্মেলন থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন রানি।

সবচেয়ে বেশিদিন ব্রিটেনের রানি হিসেবে থাকার নজির গড়েছেন ৯৫ বছরের এলিজাবেথ। ১৯৫২ সালে তিনি ইংল্যান্ডের রানির পদে অভিষিক্ত হন। গত এপ্রিলে তাঁর স্বামী প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যু হয়েছিল। দীর্ঘদিনের দাম্পত্যের বিচ্ছেদ-যন্ত্রণা সামলেও রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ গত জুনে ব্রিটেনে জি৭ বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরেই বর্ষীয়সী সম্রাজ্ঞীর শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ফিলিপিন্স ও তাইওয়ানের বিরুদ্ধে আগ্রাসী চিন, কড়া হুঁশিয়ারি আমেরিকার]

Advertisement
Next