ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে পিছিয়ে পড়েও চমক ঋষি সুনকের, বিতর্কে হারালেন ট্রাসকে

08:52 AM Aug 05, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনে তিনি হেরে যাবেন, সম্প্রতি নিজেই এমনটা জানিয়েছিলেন ব্রিটেনের (UK) প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঋষি সুনাক (Rishi Sunak)। প্রতিদ্বন্দ্বী লিজ ট্রাসের (Liz Truss) কাছে তিনি যে ক্রমেই ‘আন্ডারডগ’ হয়ে উঠছেন তা ক্রমেই পরিষ্কার হচ্ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার রাতে এক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিতর্কসভায় প্রতিদ্বন্দ্বী ট্রাসকে হারিয়ে চমকে দিলেন ঋষি। যা দেখে মনে করা হচ্ছে, যত সহজে ট্রাস জিতবেন মনে করা হচ্ছে বিষয়টা তা নয়। বরং শেষ মুহূর্তে চমক দিতে পারেন ঋষি।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

স্কাই নিউজ টেলিভিশন চ্যানেলে অনুষ্ঠিত বিতর্কসভায় সঞ্চালক কে বার্লের অস্বস্তিকর সব প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়েছিল ট্রাস ও ঋষি দু’জনকেই। বিতর্কের শেষে দেখা যায় সুনক অনেক বেশি সমর্থন পেয়েছেন। যা দেখে খোদ সঞ্চালকের প্রতিক্রিয়া, ”আমি এমনটা আশাই করিনি।”

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: হাই কোর্টে ধাক্কা ঝাড়খণ্ডের ধৃত বিধায়কদের, সিআইডিকে তদন্ত চালানোর অনুমতি বিচারপতির]

এদিনের আলোচনাসভায় রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে ট্রাসকে। জানা যায়, গত সোমবার তাঁর দলের তরফে ভোটপ্রচারের সময় যে বিবৃতি দেওয়া হয়েছিল তাতে দাবি করা হয়েছিল বার্ষিক ৮.৮ বিলিয়ন পাউন্ড সরকার বাঁচাতে পারত যদি লন্ডনের বাইরে বেসরকারি কর্মীদের বেতন কমানো সম্ভব হত। এই নিয়ে প্রশ্ন করা হলে ট্রাসকে দেখা যায়, কার্যত এই বক্তব্যের দায় অন্যের দিকে চাপাতে। যে জন্য তাঁকে কটাক্ষের মুখেও পড়তে হয়। বার্লে বলেন, ”ভালো নেতারা কি নিজের ভুল স্বীকার না করে তার দায় অন্যের ঘাড়ে চাপিয়ে দেন?”

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

সুনকের শ্বশুর ইনফোসিসের প্রতিষ্ঠাতা নারায়ণ মূর্তি। এই নিয়ে তাঁকে কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়। যদিও তা সামলে নিয়ে সুনক মনে করিয়ে দেন, তাঁর বাবা একজন চিকিৎসক ছিলেন যিনি জাতীয় স্বাস্থ্য পরিষেবা NHS-এর সঙ্গে যুক্ত। শেষ পর্যন্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত দর্শকদের মধ্যে হওয়া ভোটাভুটির ফল থেকে পরিষ্কার হয়ে যায় ট্রাসকে টেক্কা দিয়েছেন সুনক। যা তাঁর অনুগামীদের ফের আশাবাদী করে তুলছে।

উল্লেখ্য়, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী (Britain Prime Minister) পদে কে বসবেন সেই নিয়ে ভোটাভুটি, লড়াই চলছে বেশ কিছুদিন ধরে। অনেক প্রার্থীর মধ্যে ভোটাভুটি করে শেষ পর্যন্ত লড়াইয়ে টিকে রয়েছেন ঋষি সুনাক এবং লিজ ট্রাস। আগামী দিনে কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের ভোটেই ঠিক হবে, ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের মসনদে কে বসবেন।

[আরও পড়ুন: মিটল ভিসা সমস্যা, নির্ধারিত দিনে আমেরিকাতেই ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ টি-২০, খেলতে পারেন রোহিত]

Advertisement
Next