Advertisement

২৬/১১ হামলায় লাকভিকে দোষী সাব্যস্ত করা হোক, পাকিস্তানের উপর চাপ জারি আমেরিকার

05:33 PM Jan 10, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুক্রবারই ২৬/১১ মুম্বই হামলার (2008 Mumbai attacks) মূলচক্রী লস্কর-ই-তইবার শীর্ষ কমান্ডার জাকিউর রহমান লাকভিকে (Zakiur Rehman Lakhvi) কারাদণ্ডের সাজা শুনিয়েছে পাকিস্তানের (Pakistan) একটি আদালত। এই বিচারকে ‘প্রহসন’ বলে কটাক্ষ করেছে ভারত। এবার আমেরিকাও (US) সাজা ঘোষণাকে স্বাগত জানানোর সঙ্গেই খোঁচা দিয়ে রাখল ইসলামাবাদকে। মনে করিয়ে দিল, কেবল সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়া নয়, লাকভির অপরাধ আরও গুরুতর। সেই বিচারও হওয়া দরকার।

Advertisement

মার্কিন বিদেশ দপ্তরের দক্ষিণ ও মধ‌্য এশিয়া ব্যুরো এক টুইটে এভাবেই চাপ বজায় রাখল পাকিস্তানের উপরে। ওই টুইটে বলা হয়েছে, ‘‘জাকিউর রহমান লাকভির বিচার প্রক্রিয়ায় আমরা খুশি। কিন্তু ওর অপরাধ সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়ার থেকেও অনেক বেশি গুরুতর। মুম্বই হামলার মতো জঙ্গি হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগেও ওকে দোষী সাব্যস্ত করুক পাকিস্তান।’’

[আরও পড়ুন : যান্ত্রিক ত্রুটিতে আচমকা বিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ, মধ্যরাতে অন্ধকারে ডুবল পাকিস্তান]

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালের মুম্বই হামলার পরে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল লাকভিকে। তার বিরুদ্ধে ওই হামলার পরিকল্পনা ও প্রয়োজনীয় আর্থিক মদত দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু এক যুগ পেরিয়ে গেলেও সেই বিচার শেষ হয়নি। ২০১৫ সালে ওই মামলায় জামিনও পেয়ে যায় সে। তার আগে জেলে বসেই অবশ্য জঙ্গি হামলার পরিকল্পনা করার অভিযোগ উঠেছিল তার বিরুদ্ধে।

অবশেষে যেন কিছুটা নড়েচড়ে বসেছে ইসলামাবাদ। এতদিনে এই প্রথম সন্ত্রাসের সঙ্গে জড়িত থাকার কোনও অভিযোগে লাকভিকে দোষী সাব্যস্ত করা হল। এদিকে আরেক কুখ্যাত জঙ্গি মাসুদ আজহারের বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। ১৮ জানুয়ারির মধ্যে তাকে আদালতে পেশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশকে। যদিও ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা, FATF (ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স)-এর ধূসর তালিকা থেকে বেরতেই এমন সব পদক্ষেপ করছে পাকিস্তান। ধূসর তালিকার ছায়া থেকে বেরতে হলে সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে যে কঠোর পদক্ষেপ নিতেই হবে, সেটা পরিষ্কার বুঝতে পেরেছে ইসলামাবাদ। তাই FATF-এর আগামী বৈঠকের আগে নিজেদের ভাবমূর্তি শোধরাতে মরিয়া ইমরান সরকার। 

[আরও পড়ুন : ভাঙল ৫০ বছরের রেকর্ড, নজিরবিহীন তুষারঝড়ে বিপর্যস্ত স্পেনে মৃত অন্তত ৪]

Advertisement
Next