Advertisement

২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের উত্তপ্ত মুর্শিদাবাদ, উদ্ধার তৃণমূল কর্মীর গলা কাটা দেহ

09:27 AM Apr 21, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল অধীর চৌধুরীর (Adhir Ranjan Chowdhury) গড় মুর্শিদাবাদ (Murshidabad)। রাজনৈতিক হিংসার বলি হলেন আরও ১ যুবক। অভিযোগ, জায়গা দখল নিয়ে বিবাদের জেরে ওই তৃণমূল কর্মীর গলা কেটে খুন (Murder) করেছে বিজেপি (BJP) ও কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Advertisement

অষ্টম দফায় মুর্শিদাবাদের হরিহরপাড়ায় ভোটগ্রহণ (West Bengal Assembly Elections)। তার আগে সোমবার রাতে রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই এলাকা। হরিহরপাড়া বিধানসভার অন্তর্গত বিলধারীপাড়ার ঘোষালপুর এলাকায় তৃণমূল ও কংগ্রেস কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। চলে দেদার বোমাবাজি। এমনকী গুলি ছোঁড়ার অভিযোগও রয়েছে। সংঘর্ষের জেরে এক কংগ্রেস কর্মীর মৃত্যু হয়। নাম কাশেম আলি। জখম হন দু’ পক্ষের অন্তত ১০ জন। এই নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা ছিলই। মঙ্গলবার রাতে ফের বোমাবাজি শুরু হয় হরিহরপাড়া এলাকায়। দীর্ঘক্ষণ পর পরিস্থিতি কিছুটা শান্ত হতেই স্থানীয়রা বেরিয়ে দেখেন রাস্তায় পড়ে রয়েছে বাদল ঘোষ নামে এলাকারই এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ। তৃণমূল (TMC) কর্মী হিসেবে এলাকায় পরিচিত ওই যুবকের ঘাড়ে ছিল গভীর ক্ষত। বোমায় ঝলসে গিয়েছিল শরীরের একাধিক অংশ।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে করোনার দাপট আরও বাড়ল, সর্বকালের রেকর্ড গড়ে দৈনিক সংক্রমণ ১০ হাজার ছুঁইছুঁই]

সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকার একটি জায়গায় দখলকে কেন্দ্র করে বিজেপি, কংগ্রেস ও তৃণমূলের মধ্যে অশান্তি চলছিল দীর্ঘদিন ধরে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মঙ্গলবার নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায়। তৃণমূলের অভিযোগ, বিজেপি ও কংগ্রস আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই খুন করেছে বাদলকে। যদিও এবিষয়ে এখনও থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি।

[আরও পড়ুন: ফের জাতীয় স্তরে মুখ উজ্জ্বল গ্রামবাংলার, ভাল কাজের জন্য পুরস্কৃত ৭ জেলার ১১ পঞ্চায়েত]

Advertisement
Next