Advertisement

‘বিজেপির সঙ্গে আদর্শ মেলে না, ভোটে জিততেই জোট’, বিস্ফোরক তামিলনাডুর মুখ্যমন্ত্রী

02:36 PM Mar 12, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের মতোই আর যে সব রাজ্যে ভোটের দামামা বেজে গিয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম তামিলনাডু। সেখানে AIADMK-র সঙ্গে জোট বেঁধেছে বিজেপি (BJP)। কিন্তু শুক্রবার জোট সম্পর্কে বিস্ফোরক কথা বলতে শোনা গেল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ইকে পালানিস্বামীকে (Palaniswami)। তিনি স্পষ্ট জানালেন, বিজেপির সঙ্গে তাঁর দলের আদর্শ কোনওদিক থেকেই মেলে না। তবুও ভোটে জিততেই তাঁরা জোট গড়েছেন গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এদিন এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কনক্লেভে উপস্থিত হয়েছিলেন পালানিস্বামী। সেখানেই এমন কথা বলতে শোনা গেল তাঁকে। তাঁর কাছে জানতে চাওয়া হয় কেন বিজেপির সঙ্গে জোট গড়ে তাঁরা তামিলনাডুতে গেরুয়া শিবিরের জমি শক্ত করছেন। এর উত্তরে মুখ্যমন্ত্রীর জবাব, ”এটা একেবারেই ভুল ধারণা যে আমরা বিজেপিকে সাহায্য করছি। ১৯৯৯ সালে ডিএমকের সঙ্গে জোট গড়েছিল বিজেপি। কেন্দ্রে ক্ষমতা দখল করার পর থেকেই বিজেপি তামিলনাডুতে রয়েছে। সুতরাং আমরা তাদের বিশেষ সাহায্য করছি একথা বলা মোটেই ঠিক নয়। প্রত্যেক দলের নিজস্ব আদর্শ রয়েছে। এআইএডিএমকেও নিজেদের আদর্শের ভিত্তিতেই সরকার চালাবে। বিজেপির সঙ্গে জোট গড়া হয়েছে কেবল ভোটে জেতার দিকেই চোখ রেখে।”

[আরও পড়ুন: এপ্রিলে রাজ্যে আসছে রাফালে, বিধ্বংসী যুদ্ধবিমানের দ্বিতীয় স্কোয়াড্রনটি থাকবে হাসিমারায়]

কিন্তু বিজেপির সঙ্গে জোট গড়ার ফলে কি তাঁদের সংখ্যালঘু ভোট ব্যাংকে টান পড়বে না? এপ্রসঙ্গে পালানিস্বামীর সাফ কথা, ”আমাদের দল বরাবরই সংখ্যালঘুদের কল্যাণের কথা ভেবে এসেছে। সুতরাং বিজেপির সঙ্গে জোট গড়লে তাঁরা আমাদের ছেড়ে যাবেন, এমনটা হবে না। আমরা যেমন আমাদের খ্রিস্টান ভাইদের জন্য জেরুজালেম যাত্রার জন্য তহবিল তৈরি করেছি, তেমনই রমজানের সময়ও বিনামূল্যে চাল দিয়েছি মুসলিম ভাইদের।”

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

এদিকে সম্প্রতি ডিএমডিকে তাদের সঙ্গ ছেড়ে দেওয়ায় বড় ধাক্কা খেয়েছে এআইএডিএমকে-বিজেপি। অভিনেতা-রাজনীতিবিদ বিজয়কান্তের দলের তরফে বিবৃতিতে জানিয়ে দেওয়া হয়, আসন বণ্টন নিয়ে বারবার আলোচনার পরেও কোনও রফাসূত্র না মেলায় তারা জোট ছেড়েছে। তবে তাদের সঙ্গে মতের মিল না হলেও বিজেপি ও পিএমকে দুই দলের সঙ্গে আসন বণ্টন চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে এআইএডিএমকে-র। বিজেপিকে ছাড়া হয়েছে ২০টি আসন। পিএমকে লড়বে ২৩টি আসনে।

[আরও পড়ুন:  বঙ্গের নির্বাচনে ব্যস্ত, লোকসভায় দলনেতার দায়িত্ব থেকে অস্থায়ীভাবে সরলেন অধীর]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next