Advertisement

উত্তরপ্রদেশের কৃষিতে যুগান্তর আনবে নয়ডা বিমানবন্দর, শিলান্যাস অনুষ্ঠানে দাবি মোদির

05:36 PM Nov 25, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষি আইন প্রত্যাহারের (Farm Law Cancelation) কথা ঘোষণার পর প্রথম জনসভায় কৃষিক্ষেত্রের উন্নয়নের কথা উঠে এল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) ভাষণে। বৃহস্পতিবার নয়ডা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের (Noida International Airport) ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তিনি। নতুন বিমানবন্দরটি তৈরি হচ্ছে উত্তরপ্রদেশের গৌতম বুদ্ধ জেলায় (Goutam Buddha District of Uttar Pradesh)। নয়া বিমানবন্দরটি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য, “এটিই হবে উত্তর ভারতের পণ্য রপ্তানির সিংহদরজা”। বলেন, “পর্যটন ও কৃষিক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন আনবে এই বিমানবন্দর”।

Advertisement

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী বলেন, “নতুন বিমানবন্দর নয়ডা ও পশ্চিম উত্তরপ্রদেশকে বিশ্বের মানচিত্রে তুলে আনবে। বিশেষভাবে প্রভাবিত হবে পর্যটন শিল্প। নয়ডা বিমানবন্দর নির্মাণ হয়ে গেলে পুণ্যার্থীরা অনায়াসে রাজ্যের মন্দির ও মাজার দর্শন করতে পারবেন।” এরপরই কৃষিক্ষেত্রের উন্নয়নের প্রসঙ্গ টানেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, “পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে কৃষিক্ষেত্রে যে সম্ভাবনা রয়েছে তা বাস্তব হবে এবার। ছোট কৃষকরা সহজেই কৃষিপণ্য রপ্তানি করতে পারবেন।” প্রধানমন্ত্রী মোদির মতে, “উত্তরপ্রদেশ আগামী দিনে ‘উত্তম সুবিধা’ এবং ‘নিরন্তর নিবাস’ নামে পরিচিত হবে।”

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: কেন কংগ্রেস ছেড়ে ঘাসফুলে? অবশেষে মুখ খুললেন মুকুল সাংমা]

গুরু নানকের জন্মদিনে বড় ঘোষণা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিতর্কিত তিন কৃষি আইন প্রত্যাহার করার কথা জানান। যার ফলে সাফল্য পায় কৃষকদের দীর্ঘদিনের আন্দোলন। যদিও আন্দোলনকারী কৃষকেরা জানিয়ে দিয়েছেন, যতক্ষণ না কাগজকলমে আইন প্রত্যাহার হবে, ততক্ষণ আন্দোলন চলবে। পাশপাশি নূন্যতম সহায়ক মূল্য নিয়ে তাঁদের দাবি মেটাতে হবে। উল্লেখ্য, মোদি সরকারের তিন বিতর্কিত কৃষি আইনের প্রতিবাদে আন্দোলনকারী কৃষকদের একটা বড় অংশই হল উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা। সেই কারণেই সরাসরি কৃষি আইন প্রত্যাহারের প্রসঙ্গ না টানলেও কৃষিক্ষেত্রের উন্নয়নের কথা উঠে এল প্রধানমন্ত্রীর মুখে, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

প্রসঙ্গত, নয়ডা বিমানবন্দরটি তৈরি হলে তা হবে উত্তরপ্রদেশের দশম বিমানবন্দর। রাজ্যের পঞ্চম আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। যা ভারতের আর কোনও রাজ্যে নেই। বৃহস্পতিবার বিমানবন্দরের শিলান্যাস অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (CM Yogi Adityanath) ও অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া (Jyotiraditya Scindia)।

Advertisement
Next