Advertisement

অব্যাহত দুঃসময়, FATF-এর ধূসর তালিকা থেকে মুক্তি পেল না পাকিস্তান

02:59 PM Feb 26, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সময়টা একেবারেই ভাল যাচ্ছে না ইমরান খানের (Imran Khan)। একে তো বিরোধী গোষ্ঠীর লাগাতার আন্দোলনে চাপ ক্রমেই বাড়ছে। তার মধ্যে নতুন দুঃসংবাদ। FATF-এর (ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স) ধূসর তালিকা থেকে বেরতে পারল না পাকিস্তান (Pakistan)। আন্তর্জাতিক সংগঠনটির তরফে জানানো হয়েছে, সন্ত্রাসে আর্থিক মদত বন্ধ করতে যে যে পদক্ষেপ করতে বলা হয়েছিল তা করতে পারেনি পাকিস্তান। তাই এখনও ওই তালিকাতেই রাখা হচ্ছে তাদের। এরপর ফের জুনে তাদের অবস্থান পর্যালোচনা করা হবে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

২০১৮ সালের জুন মাসে ধূসর তালিকাভুক্ত করা হয় ইমরান খানের দেশকে। সেই সঙ্গে তাদের নির্দেশ দেওয়া হয় ২০১৯ সালের মধ্যে সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়া ও আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ থেকে মুক্ত হতে অ্যাকশন প্ল্যানগুলি মেনে চলতে। পরে করোনা পরিস্থিতিতে এই ডেডলাইন পরে আরও বাড়িয়ে দেওয়া হয়। তারপর থেকেই ইমরান প্রশাসন মরিয়া হয়ে চেষ্টা করেছে ওই তালিকার ছায়া থেকে বেরিয়ে আসার। কিন্তু প্যারিস স্থিত FATF-এর একের পর এক বৈঠকের পরও কাটেনি বিপদ। ধূসর তালিকা থেকে আর বেরনো হয়নি ইসলামাবাদের। এই পরিস্থিতি ফেব্রুয়ারির বৈঠককে ঘিরে ক্রমশ আশা জেগেছিল। গত নভেম্বরে শীর্ষ পাক গোয়েন্দা সংস্থা FIA দেশের মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গিদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছিল। তখন থেকেই বোঝা গিয়েছিল, ধূসর তালিকার ছায়া থেকে বেরতে হলে সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে যে কঠোর পদক্ষেপ নিতেই হবে, সেটা পরিষ্কার বুঝতে পেরেছে পাকিস্তান।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: যুদ্ধ জর্জর সিরিয়ার পাশে দাঁড়াল ভারত, ত্রাণ সামগ্রী পাঠিয়ে সাহায্য নয়াদিল্লির]

ইমরান খানের দেশের বিরুদ্ধে অভিযোগ, সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়া ও অন্যান্য আর্থিক দুর্নীতিতে যুক্ত থাকার। বৃহস্পতিবার FATF-এর তরফে জানানো হয়, তাদের তৈরি করে দেওয়া ২৭টি অ্যাকশন প্ল্যানের মধ্যে তিনটি এখনও মেনে চলতে পারেনি পাকিস্তান। এরপর আগামী জুনে ফের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখা হবে। তখন যদি দেখা যায় সব অ্যাকশন প্ল্যানই মেনে চলছে পাকিস্তান, সেক্ষেত্রে পুনর্বিবেচনা করা হবে ইমরানের দেশের অবস্থান। তবে পাকিস্তান যে তালিকা থেকে বেরতে ‘তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ’ করেছে তা মেনে নিয়েছে FATF। যদিও সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়ার ক্ষেত্রটিতে এখনও পুরোপুরি সাফল্য আসেনি।

[আরও পড়ুন: সীমান্তে শান্তি ফেরানোর চেষ্টা ভারত ও পাকিস্তানের, প্রশংসা রাষ্ট্রসংঘের মহাসচিবের]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next