Advertisement

সরকার বিরোধী সহিংস আন্দোলনে উসকানি! সাংবাদিককে ফাঁসিতে ঝোলাল ইরান

05:10 PM Dec 12, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০১৭ সালে ইরানে হওয়া সরকার বিরোধী সহিংস আন্দোলনে উসকানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। এর জেরে শনিবার ভোরে দেশের একজন বিখ্যাত সাংবাদিককে ফাঁসিতে ঝোলাল ইরান (Iran)। ওই সাংবাদিকের নাম রুহুল্লাহ জাম। এই ঘটনার কথা প্রকাশ্য আসার পরেই দেশজুড়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। তীব্র নিন্দা করে প্রতিক্রিয়া দিয়েছে ফ্রান্সের বিদেশ মন্ত্রকও।

Advertisement

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৭ সালে সরকার বিরোধী সহিংস আন্দোলনে উসকানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল ৪৭ বছরের রুহুল্লাহ জামের (Ruhollah Zam) বিরুদ্ধে। প্রশাসনের তরফে খোঁজাখুঁজি শুরু হওয়ার পরেই ইরান থেকে সোজা ফ্রান্সে পালিয়ে যান সংস্কারপন্থী শিয়া ধর্মীয় নেতার ছেলে রুহুল্লাহ। তারপর থেকে ফ্রান্সেই আশ্রয় নিয়েছিল ওই সাংবাদিক। কিন্তু, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ইরাক থেকে পাকড়াও করে তাঁকে তেহরানে নিয়ে আসে ইরানি গোয়েন্দারা। আর এই বছরের জুন মাসে তাঁকে দুর্নীতির জন্য দোষী সাব্যস্ত (corruption on Earth) করে ফাঁসির সাজা দেয় ইরানের একটি আদালত। গত মঙ্গলবার ইরানের সুপ্রিম কোর্টও সেই রায় বহাল রাখে। সেই নির্দেশের ভিত্তিতে শনিবার সকালে ফাঁসিতে ঝোলানো হল রুহুল্লাহ জামকে।

[আরও পড়ুন: ভয়াবহ রকেট হানায় কেঁপে উঠল কাবুল! একমাসের মধ্যে দ্বিতীয় হামলায় ছড়াল আতঙ্ক]

এদিকে এই ঘটনার কথা জানাজানি পরেই ইরানের তীব্র সমালোচনা করেছে ফ্রান্সের বিদেশ মন্ত্রক। রীতিমতো বিবৃতি প্রকাশ করে তারা উল্লেখ করেছে, রুহুল্লাহ জামের মতো সাংবাদিককে মৃত্যুদণ্ডের দেওয়ার মতো ঘটনা মত ও সংবাদ প্রকাশের স্বাধীনতার উপর মারাত্মক আঘাত। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে ইরানকে মানবাধিকার সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক নিয়মাবলী মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে শেষের দিকে খাদ্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হয়েছিল। পরে সহিংস সেই আন্দোলনের জেরে ২৫ জনের মৃত্যু হয় আর ৫ হাজারের বেশি মানুষকে গ্রেপ্তার করে প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: ফাইজারের ভ্যাকসিনের জরুরি ব্যবহারে ছাড়পত্র আমেরিকার, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শুরু টিকাকরণ]

Advertisement
Next