shono
Advertisement

Breaking News

Election Commission of India

ওয়েবকাস্টিং চালুর দায়িত্ব প্রিসাইডিং অফিসারের, ভোটগ্রহণ অব্যাহত রাখতে নয়া নির্দেশিকা কমিশনের

শুক্রবার সন্ধেয় ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ওয়েবকাস্টিং সংক্রান্ত নয়া নির্দেশিকা জারি করা হল কমিশনের কার্যালয় থেকে। বাড়তি দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রিসাইডিং অফিসারকে।
Published By: Sucheta SenguptaPosted: 11:43 PM May 31, 2024Updated: 11:50 PM May 31, 2024

সুদীপ রায়চৌধুরী: সপ্তম তথা শেষ দফার লোকসভা ভোট সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে তৎপরতার অন্ত নেই নির্বাচন কমিশনের। এই দফায় বাংলার সবচেয়ে বেশি আসনে ভোট - কলকাতার দুই লোকসভা কেন্দ্র-সহ মোট ৯টি আসনে। আর তা যাতে নির্বিঘ্নে হয়, তার জন্য সদাসতর্ক কমিশন। শুক্রবার সন্ধেয় ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ওয়েবকাস্টিং সংক্রান্ত নয়া নির্দেশিকা জারি করা হল কমিশনের কার্যালয় থেকে। তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, ভোটকেন্দ্রে ওয়েবকাস্টিং বন্ধ হয়ে গেলেও ভোটগ্রহণ অব্যাহত থাকবে, তা বন্ধ করা যাবে না। সেক্ষেত্রে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব, দ্রুত ক্যামেরা চালু করা।

Advertisement

শুক্রবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে নির্বাচন কমিশনের (Election Commission of India) তরফে জানানো হয়েছে, ওয়েবকাস্টিং সংক্রান্ত নির্দেশিকাটিকে ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হচ্ছে। বুথে ওয়েবকাস্টিং বন্ধ হলেই ভোটগ্রহণ বন্ধ হবে, এমন কোথাও বলা হয়নি। ১০০ শতাংশ বুথে ওয়েবকাস্টিং (Webcasting) আবশ্যক। তবে সেক্ষেত্রে ক্যামেরা কোনও কারণে বন্ধ হয়ে গেলে প্রিসাইডিং অফিসারের দায়িত্ব তা দ্রুত চালু করা। তিনি সেক্টর অফিসারের সঙ্গে কথা যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। সেই দায়িত্ব বুথের প্রিসাইডিং অফিসারেরই।

[আরও পড়ুন: ভোটের পরও রাজ্যে থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী, কতদিন কত কোম্পানি? জানাল কমিশন]

বৃহস্পতিবার কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছিল, সপ্তম দফার নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে করতে ওয়েবকাস্টিং বাধ্যতামূলক হচ্ছে। কোনও বুথে ইভিএম (EVM) খারাপ হলে যেমন ভোটগ্রহণ বন্ধ করে দেওয়া হয়, সেভাবেই ক্যামেরা অফ হয়ে গেলেও ভোট নেওয়ার প্রক্রিয়া থামিয়ে দিতে হবে। শ্যাডো জোন অর্থাৎ যেখানে নেটওয়ার্ক খারাপ অথবা দুর্বল, সেখানে ভিডিওগ্রাফি (Videography) করতে হবে। কিন্তু শুক্রবার এই নির্দেশিকা নিয়ে সংশোধন করে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে কমিশনের তরফে। জানানো হয়েছে, ওয়েবকাস্টিং বন্ধ থাকলেও বুথে ভোটগ্রহণ স্থগিত করতে হবে, তা কোথাও বলা হয়নি। প্রিসাইডিং অফিসারকে সেই ক্যামেরা দ্রুত চালু করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ভোট শুরু হবে সকাল ৭টা থেকে। তার অন্তত একঘণ্টা আগে থেকে ক্যামেরা চালু করতে হবে প্রতি বুথে, এমনই নির্দেশ কমিশনের। চব্বিশের লোকসভা ভোট (2024 Lok Sabha Electio) সুষ্ঠু  ও শান্তিপূর্ণ করতে নজরদারিতে এভাবেই জোর দিয়েছে কমিশন।

[আরও পড়ুন: মোদি থেকে অভিষেক, সপ্তম দফার নির্বাচনে ভাগ্যপরীক্ষা একঝাঁক হেভিওয়েটের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

হাইলাইটস

Highlights Heading
  • শেষ দফা নির্বাচনে সুষ্ঠু ভোটগ্রহণে নয়া নির্দেশিকা কমিশনের।
  • ওয়েবকাস্টিং বন্ধ হলেও চলবে ভোটগ্রহণ, ক্যামেরা চালুর দায়িত্ব প্রিসাইডিং অফিসারের।
Advertisement