Puri Temple: পুণ্যার্থীদের জন্য খুলছে পুরীর মন্দির, দিনক্ষণ জানিয়ে দিল কর্তৃপক্ষ

04:52 PM Jan 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুণ্যার্থীদের জন্য সুখবর। করোনা আতঙ্ক কাটিয়ে ফের খপলছে পুরীর জগন্নাথ মন্দির (Puri Temple)। তবে কারা প্রবেশ করতে পারবেন, কী কী নিয়ম মানতে হবে, সেই সংক্রান্ত বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তি এখনও জারি করা হয়নি। কবে খুলছে পুরীর মন্দিরের দরজা?

Advertisement

করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতে মন্দির খোলা নিয়ে শুক্রবার বৈঠকে বসেছিলেন কমিটির সদস্যরা। সেই বৈঠকেই ঠিক হয় ১ ফেব্রুয়ারি থেকে খুলবে মন্দিরের দরজা। অর্থাৎ ফেব্রুয়ারির মাসের প্রথম দিন থেকেই মন্দির প্রবেশ করতে পারবেন দর্শনার্থীরা। তবে স্যানিটাইজেশনের জন্য প্রতি সপ্তাহে রবিবার বন্ধ থাকবে মন্দির। প্রবেশের জন্য কী কী প্রোটোকল মানতে হবে, তা পরে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ, রামকৃষ্ণ মিশনের রাঁধুনির রহস্যমৃত্যুতে গ্রেপ্তার মহারাজ]

এ প্রসঙ্গে পুরীর জেলাশাসক সমর্থ বর্মা বলেন, “পুরীর সেবায়েতদের বিভিন্ন কমিটি এবং পরিচালন কমিটির সঙ্গে বৈঠক করে জেলা প্রশাসন। সেখানে সকলেই মন্দির খোলার বিষয়ে সহমত হয়েছেন। জীবন ও জীবিকার মধ্যে সামঞ্জস্য বজায়র রাখার বিষয়ে আমরা সহমত। তাই কোভিডবিধি মেনে মন্দির খোলার বিষয় সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।”

Advertising
Advertising

করোনা পরিস্থিতিতে ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে দেশের অন্যান্য ধর্মীয় স্থানের মতো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল পুরীর জগন্নাথ মন্দিরও। আনলক পর্বে ধীরে ধীরে দেশের অন্যান্য মন্দির খুললেও পুরীর জগন্নাথ মন্দির বন্ধই ছিল। করোনা কালে পুরীর রথযাত্রায় (Rathyatra) জমায়েত একেবারে নিষিদ্ধ হয়ে যায়। শুধুমাত্র প্রথাটুকুই পালন করা হয়। দীর্ঘ ৯ মাস পর ডিসেম্বরে কোভিডবিধি মেনে ভক্তদের জন্য পুরীর মন্দিরের দরজা খোলে। তারপরও করোনা পরিস্থিতির দিকে নজর রেখেছে মন্দির কর্তৃপক্ষ। এবার ফের সাবধানতা অবলম্বন করতে জানুয়ারি মাস থেকে ১০ তারিখ থেকে মন্দির বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: খাস কলকাতায় ট্যাক্সিতে ফের মহিলা যাত্রীর শ্লীলতাহানি, গ্রেপ্তার অভিযুক্ত চালক]

 জানুয়ারি মাসে মন্দির প্রশাসনের সদস্য থেকে সাধারণ সেবক, অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ভক্ত ও সেবকদের স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে ১০ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ রাখা হবে মন্দির। 

Advertisement
Next