Advertisement

অর্থাগম নাকি ব্যয়? রাশি অনুযায়ী জেনে নিন কেমন কাটবে চলতি সপ্তাহ

11:00 AM Nov 29, 2020 |
Advertisement
Advertisement
Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

অমিতাভ বন্দ্যোপাধ্যায়

 
 

কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছি আমরা। এই পরিস্থিতিতে ভাল নাকি মন্দ, কেমন কাটবে আপনার চলতি সপ্তাহ? শারীরিক অবস্থাও ঠিক থাকবে তো? রাশি অনুযায়ী জেনে নিন উত্তর। এ সপ্তাহের রাশিফল (Horoscope) জানালেন অমিতাভ বন্দ্যোপাধ্যায়

মেষ

মেষ রাশির জাতকদের আর্থিক দিক থেকে ভাল-মন্দয় কাটবে। ব‌্যবসায়ীরা কোনও বড় সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ভাবনাচিন্তা করে নেবেন। বন্ধুবান্ধবের থেকে প্রতারিত হতে পারেন। অবিবাহিত জাতক-জাতিকাদের বিবাহযোগ বিদ‌্যমান। বহুদিন আটকে থাকা অর্থ আদায় হতে পারে।  

বৃষ

সপ্তাহটি ঘটনাবহুল। সপ্তাহের প্রথম দিকে কর্মক্ষেত্রে অস্থিরতা বৃদ্ধি পাবে। এই সময় বিতর্ক-বিবাদ এড়িয়ে চলুন। কর্মপ্রার্থী জাতক-জাতিকারা নতুন কর্মের সন্ধান পাবেন। ব‌্যবসায়ীদের পক্ষে সপ্তাহটি আশাব‌্যঞ্জক না হলেও মোটামুটি চলবে। সহোদর-সহোদরার ব‌্যবহারে মানসিক অশান্তি সৃষ্টি হতে পারে। এ ব‌্যাপারে পিতামাতার পরামর্শ নেওয়া প্রয়োজন।

মিথুন

কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত পরিশ্রম ও দায়বদ্ধতা মানসিক অবসাদ সৃষ্টি করতে পারে। মানসিক চাঞ্চল্য কাটাতে পরিবার বা বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে ভ্রমণে বেরিয়ে পড়ুন। প্রেম-পরিণয়ের ক্ষেত্রে ছোটখাটো ভুল বোঝাবুঝির ফলে সম্পর্ক নষ্ট হতে পারে। গৃহ বা জমি-বাড়ি ক্রয়ের ক্ষেত্রে আর্থিক সংস্থা থেকে ঋণ মঞ্জুর হবে।

কর্কট

গুরুজন স্থানীয় নিকট আত্মীয়ের শরীর সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। স্বামী-স্ত্রীর দাম্পত‌্য কলহ সন্তানদের মনের উপর প্রভাব ফেলতে পারে। প্রতিবেশীদের উপকার করলেও তাদের থেকে ভাল ব‌্যবহার পাবেন না। দালালি ও কমিশন ব‌্যবসার সঙ্গে যুক্ত ব‌্যক্তিরা এইসময় অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

সিংহ

এই রাশির জাতকদের সপ্তাহটি শুভ। এই সময় আর্থিক ব‌্যাপারে চাপ থাকলেও সঞ্চয়ে বাধা পড়বে না। ব‌্যবসায়ীদের বহুমুখী উপায়ে অর্থ উপার্জন হতে পারে। পারিবারিক বিবাদের জন‌্য পিতা-মাতার সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ হতে পারে। কর্মপ্রার্থীরা নতুন কর্মের সন্ধান পেলেও ব‌্যবসার দিকে মন দিলে অতীব উন্নতি সম্ভব।

কন্যা

হঠাৎ পত্নীর শারীরিক অসুস্থতা মানসিক উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াবে। পত্নীর হৃদরোগ ও ফুসফুসের চিকিৎসার জন‌্য সুচিকিৎসকের পরামর্শ নিন। এ ব‌্যাপারে অধিক অর্থব‌্যয়ের জন‌্য চিন্তা করবেন না। চাকরিসূত্রে সন্তানরা বিদেশ ভ্রমণ করতে পারেন। কৃষিকাজের সঙ্গে যুক্ত ব‌্যক্তিরা এই সময় তাদের ফসলের ভাল দাম পাবেন।

তুলা

কর্মক্ষেত্রে আপনার সহকর্মীরা গোপনে শত্রুতা করলেও বড় ধরনের কোনও ক্ষতি করতে পারবে না। বাড়তি অর্থ দিয়ে সন্তানদের উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাপনের দিকে ঠেলে দেবেন না। তাদের কাজকর্মের ব‌্যাপারে সদা দৃষ্টি রাখুন। ব‌্যবসায়ীদের এই সময় ব‌্যবসা বৃদ্ধির ব‌্যাপারে নতুন পরিকল্পনা গ্রহণ করতে পারেন।

বৃশ্চিক

চাকরিজীবীদের কাজের প্রশংসা প্রাপ্তির যোগ ও আর্থিক উন্নতির যোগ লক্ষ‌্য করা যায়। সংগীত শিল্পী, নৃত‌্যশিল্পী ও অন‌্যান‌্য শিল্পীদের জনপ্রিয়তা বাড়বে ও তাদের কাজের সরকারি স্বীকৃতি লাভ করতে পারবে। প্রেম-পরিণয়ের ক্ষেত্রে বাধা-বিপর্যয় এলেও তৃতীয় ব‌্যক্তির সহায়তা নেবেন না। সেক্ষেত্রে উপহাসের পাত্র হতে পারেন।

ধনু

বহুদিন ধরে চলা কর্মক্ষেত্রে অশান্তি কেটে যাবে এবং নতুন কর্মের সন্ধান পেতে পারেন। সৃষ্টিশীল কাজে সাফল‌্য ও সুনাম আপনার মান ও যশ বৃদ্ধি করবে। পরিবারে পেটের সমস‌্যা দেখা দিতে পারে। এই সময় গুরুপাক আহার বর্জনীয়। সপ্তাহের শেষে পুজোপাঠের মাধ‌্যমে সাংসারিক শান্তি বজায় থাকবে।

মকর

স্বাস্থ‌্য নিয়ে সাবধানতা প্রয়োজন। এই সময় গলা ও বুকের সমস‌্যা ও সর্দিকাশিতে ভোগান্তি হতে পারে। শ্বশুরকূল থেকে মূল‌্যবান জিনিস প্রাপ্তির যোগ লক্ষ‌্য করা যায়। ভোগবিলাসে অতিরিক্ত অর্থ ব‌্যয় করার ফলে আর্থিক কষ্ট সৃষ্টি হতে পারে।

কুম্ভ

পাড়া-পড়শিদের পরোপকার করতে গিয়ে বিপদের মুখে পড়তে হতে পারে। সংসারে পত্নীর ব‌্যবহার সুখ, শান্তি বৃদ্ধি পাবে। বিদ‌্যার্থীরা বিদ‌্যাচর্চার শুভফল পাবেন। স্বনিযুক্তি কাজের সঙ্গে যুক্ত ব‌্যক্তিরা তাদের কাজের সাফল্য লাভ করতে পারবেন। মায়ের স্বাস্থ্যের র অবনতির ফলে মানসিক উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি পাবে।

মীন

শারীরিক অবস্থা ভাল না থাকলেও আর্থিক অবস্থা ভালই থাকবে। ক্ষুদ্র ব‌্যবসায়ীরা এই সময় অধিক উপার্জন করতে পারবেন। উচ্চবিদ‌্যায় পারদর্শী ব‌্যক্তিরা বিদেশে ভাগ্যোন্নতির সুযোগ পাবেন। সন্তানের শরীর এই সময় ভাল যাবে না। অবিবাহিতদের বিবাহযোগ দেখা দিলেও বিবাহের পূর্বে সবদিক যাচাই করে নেবেন।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

ll দশা ও অন্তর্দশা না থাকলে রাশিফল অভ্রান্ত হয় না। শুধুমাত্র রাশির উপস্থিতিতে গোচর ফল আংশিক মিলবে ll

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next