Advertisement

অবৈধ নির্মাণের অভিযোগ, জেরুজালেমে মসজিদ ভাঙার নির্দেশ ইজরায়েলের আদালতের

05:13 PM Sep 15, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনুমতি না নিয়ে অবৈধভাবে নির্মাণ করা হয়েছে। এই অভিযোগে জেরুজালেমে একটি মসজিদ ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিল ইজরায়েলের একটি আদালত। এই ঘটনার কথা জানাজানি হওয়ার পরেই বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশের কাছে তাঁদের রক্ষা করার আবেদন জানিয়েছেন প্যালেস্তাইনের বাসিন্দারা।

Advertisement

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব জেরুজালেমে সিলওয়ান শহরে অবস্থিত কাক্কা বিন আমর (Qaqaa Bin Amr mosque) নামে ওই দোতলা মসজিদটি ২০১২ সালে তৈরি করা হয়েছিল। তারপর থেকে ওই মসজিদে প্রায় প্রতিদিনই প্রচুর মানুষ প্রার্থনা জানাতে আসতেন। এর মাঝেই অবৈধ নির্মাণের অভিযোগে আচমকা ২০১৫ সালে ওই মসজিদটি ভাঙার নির্দেশ দেয় ইজরায়েলের একটি আদালত। যদিও সেসময় এই নির্দেশটিকে কার্যকর করা হয়নি।

[আরও পড়ুন: লাদাখের সংঘাতে জোর ধাক্কা খেয়েছে জিনপিংয়ের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ: রিপোর্ট ]

সম্প্রতি ফের ওই মামলার শুনানি শুরু হয়। আর সোমবার সেই মামলার রায় দিতে গিয়ে মসজিদ (mosque)’টি ভাঙার নির্দেশ দেয় আদালত। তবে এই আদেশের বিরুদ্ধে উচ্চতর আদালতে আবেদন জানানোর জন্য মসজিদ কর্তৃপক্ষকে ২১ দিনের সময় দিয়েছেন বিচারক। অন্যদিকে এই রায়ের কথা জানাজানি হতেই বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন প্যালেস্তাইনের বাসিন্দারা। ইজরায়েলের আগ্রাসন থেকে তাঁদের জীবন ও ধর্মাচরণের অধিকার রক্ষা করার প্রার্থনা করেছেন।

এপ্রসঙ্গে সিলওয়ানের এক বাসিন্দা জানান, কয়েক বছর ধরেই ওই মসজিদটি ভাঙার চক্রান্ত করছে ইজরায়েল। তাই দীর্ঘদিন ধরে ওই মসজিদের আশপাশে বসবাসকারী মানুষদের ঘরবাড়ি ভেঙে ফেলা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, অবৈধভাবে নির্মাণের অভিযোগে মসজিদ কর্তৃপক্ষের থেকে জরিমানাও আদায় করা হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে নির্মাণের কাজে বাধা দেওয়া হয়েছে। এবার পুরো মসজিদটাকেই ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এখনও যদি আরব লিগ ও ওআইসি-সহ মুসলিম দেশগুলির সংগঠন ইজরায়েলের আগ্রাসন থামাতে না পারে তাহলে প্যালেস্তাইনের বাসিন্দাদের জীবন ও ধর্মাচরণের অধিকারকে রক্ষা করা যাবে না।

[আরও পড়ুন: নভেম্বরেই বাজারে আসবে চিনের তৈরি করোনার ভ্যাকসিন, দাবি আধিকারিকের]

The post অবৈধ নির্মাণের অভিযোগ, জেরুজালেমে মসজিদ ভাঙার নির্দেশ ইজরায়েলের আদালতের appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next