ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে হামলার আগে কয়েক মাস ভারতে ছিল মূল আততায়ী! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য

08:04 PM Dec 08, 2020 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত বছর নিউজিল্যান্ডের (New Zealand) ক্রাইস্টচার্চ মসজিদে (Mosque) জঙ্গি (Terrorist) হামলায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ৫১ জন মুসলিম (Muslim)। জানা গিয়েছে, সেই হামলার মূল আততায়ী অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক ব্রেন্টন টারান্ট হামলার আগে বিশ্বের বহু দেশেই ঘুরে বেরিয়েছিল। এর মধ্যে সবথেকে বেশি সময় সে কাটিয়েছিল ভারতে! যা ঘিরে ঘনিয়ে উঠছে রহস্য। জানা গিয়েছে, এদেশে এসে তিন মাস থেকে গিয়েছিল সে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

নিউজিল্যান্ডের ইতিহাসে অন্যতম জঘন্য ও নৃশংস জঙ্গি হাম‌লা ছিল ২০১৯ সালের ওই হামলা। দু’টি মসজিদে হামলা চালিয়েছিল আততায়ী। মঙ্গলবার প্রকাশিত হয়েছে সেই হাম‌লার বিস্তৃত রিপোর্ট। যা থেকে ব্রেন্টনের জীবন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাচ্ছে। রয়্যাল কমিশনের ৭৯২ পাতার রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০১২ সাল পর্যন্ত একটি জিমে ট্রেনারের কাজ করত সে। পরে চোট পাওয়ায় ওই কাজ ছেড়ে দিলেও নতুন কোনও কাজে আর যোগ দেয়নি ব্রেন্টন। তবে বাবার কাছ থেকে পাওয়া টাকায় এরপর বহু দেশে ঘুরে বেরিয়েছিল ওই জঙ্গি। প্রথমে ২০১৩ সালে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া ঘুরে বেড়ানোর পরে ২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত বাকি দুনিয়ায় নানা দেশে যায় সে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন : স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রিত ‘বুদ্ধিমান’ অস্ত্রে হত্যা ইরানের পরমাণু বিজ্ঞানীকে!]

চিন, জাপান, রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়ার মতো নানা দেশে ঘুরে বেড়ালেও সবথেকে বেশি সময় সে থেকে গিয়েছে ভারতেই। ২০১৫ সালের ২১ নভেম্বর থেকে ২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। আর এখানেই ঘনাচ্ছে রহস্য। কী করেছিল সে ওই দীর্ঘ তিন মাস? যদিও তার কোনও উত্তর মেলেনি রিপোর্ট থেকে। সে কোনও জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিল কিংবা প্রশিক্ষণ নিয়েছিল কিনা সেবিষয়ে তদন্তে কোনও প্রমাণ মেলেনি। প্রসঙ্গত, ওই জঙ্গি হামলার মূল অভিযুক্ত হিসেবে গত আগস্টে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা দেওয়া হয়েছে ব্রেন্টনকে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন : চিনকে চাপে রাখার চেষ্টা! যৌথ সামরিক মহড়ায় অংশ নিচ্ছে জাপান, আমেরিকা ও ফ্রান্স]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next