ভারতের গম রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করল সংযুক্ত আরব আমিরশাহী

08:40 AM Jun 16, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারত থেকে কেনা গম ও গমের আটা-ময়দা রপ্তানির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল সংযুক্ত আরব আমিরশাহী। আপাতত আগামী চার মাসের জন্য এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা ‘WAM’।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

আমিরশাহীর অর্থনীতি মন্ত্রক জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে পণ্যের জোগান প্রক্রিয়া ব্যাহত হওয়ার ফলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে কোনও বাণিজ্যিক সংস্থা যদি মে মাসের ১৩ তারিখের আগে ভারত থেকে কেনা গম রপ্তানি করতে চায়, তাহলে অর্থনীতি মন্ত্রক থেকে বিশেষ অনুমতি নিতে হবে। আমিরশাহীর ঘরোয়া চাহিদা মেটাতে গম রপ্তানি করছে ভারত (India) বলেও জানান হয়েছে মন্ত্রকের তরফে। বিশ্লেষকদের একাংশের ধারণা, ইউক্রেন যুদ্ধের আবহে খাদ্যশস্যের জোগান প্রভাবিত হয়েছে। তাই দেশের বাজারে দাম যাতে না বাড়ে তা নিশ্চিত করতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে আবু ধাবি। কিন্তু, নূপুর শর্মার পয়গম্বর মন্তব্য নিয়ে বিতর্কের আবহে আমিরশাহীর এহেন পদক্ষেপ জল্পনা উসকে দিচ্ছে।

[আরও পড়ুন: পশ্চিমী দেশগুলিকে বিঁধে ভারতের পাশে চিন, গম রপ্তানি বন্ধে সমর্থন বেজিংয়ের]

উল্লেখ্য, ঘরোয়া বাজারের চাহিদা মেটাতে গত ১৪ মে গম রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল ভারত। ইউক্রেন (Ukraine) যুদ্ধের আবহে নয়াদিল্লির এই সিদ্ধান্তের জেরে ইউরোপ ও পশ্চিম এশিয়ায় গমের দাম বাড়তে শুরু করে। একাধিক দেশ এবং আন্তর্জাতিক অর্থভাণ্ডার (আইএমএফ)-এর তরফে ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার আবেদন জানানো হয়েছে ভারতের কাছে। তবে যে দেশগুলির সঙ্গে ইতিমধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে তাদের গমের জোগান দেওয়া হয়েছে। এছাড়া, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিশেষ কিছু দেশে গম জোগান বন্ধ হবে না বলেও জানিয়েছিল মোদি সরকার।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারি মাসে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও মজবুত করে বাণিজ্য চুক্তিতে সই করে দুই দেশ। মে মাস থেকে তা লগু হয়েছে। তারপরই পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে একশো শতাংশ শুল্ক ছাড় দেওয়ার কথা ঘোষণা করে নয়াদিল্লি ও আবু ধাবি। আগামী পাঁচ বছরে ১০০ বিলিয়ন ডলার বাণিজ্য করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়েছে ওই চুক্তিতে।

[আরও পড়ুন: মোদির চাপে আদানিকে শ্রীলঙ্কায় বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরির বরাত! প্রতিবাদের ডাক লঙ্কাবাসীর]

Advertisement
Next